নেত্রকোনা ০৯:৩৯ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

বারহাট্টায় সাত মাসের অন্তঃস্বত্তা গৃহবধূর লাশ উদ্ধার, শ্বশুর শ্বাশুড়ি আটক

নেত্রকোনার বারহাট্টা উপজেলার সিংধা গ্রামে ও মোহনগঞ্জের সীমানায় তমালিকা (২০) নামে এক অন্তঃস্বত্তা গৃহবধূর গলাকাটা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় পুলিশ শ্বশুর ও শ্বাশুড়িকে আটক করেছে এবং স্বামী রাসেল মিয়া পলাতক রয়েছে। লাশ উদ্ধারের পর নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায় পুলিশ। পুলিশ জানায়, পারিবারিক কলহের জেরে বৃহস্পতিবার ভোর রাতে সিংধা ইউনিয়নের সিংধা গ্রামে গৃহবধূ হত্যার ঘটনা ঘটেছে।

নিহত গৃহবধূর ভগ্নিপতি মো. হাবিবুর রহমান জানান, প্রায় দেড় বছর পূর্বে একই উপজেলার বাট্টাপাড়া গ্রামের রহিছ মিয়ার মেয়ের সাথে চরসিংধা গ্রামের আবুল হাসিম ও মাজেদার ছেলে রাসেলের বিয়ে হয়। এর আগে রাসেলের সাবেক স্ত্রী তাকে তালাক দিয়েছিলো। পরবর্তীতে আবার সাবেক স্ত্রীর সাথে সম্পর্ক হওয়ায় তমালিকার সাথে শুরু হয় স্বামীর কলহ। এরই জেরে বিভিন্ন সময়ে তমালিকাকে মারধর করে আসছিল রাসেল। এরই ধারাবাহিকতায় গত বুধবার দিনগত রাতে পরিকল্পিতভাবে এই ঘটনা ঘাটিয়েছে। রাসেল ময়মনসিংহের ভালুকা এলাকায় একটি গার্মেন্টস ফ্যাক্টরিতে চাকুরি করে। মেয়েটি সাত মাসের অন্তঃস্বত্তা ছিলো বলে জানান তিনি।

বারহাট্টা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মিজানুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় জড়িত থাকার সন্দেহে নিহতের শ্বশুর আবুল হাসিম ও শ্বাশুড়ি মাজেদা আক্তারকে থানায় আনা হয়েছে। তাদের কথায় অসামঞ্জতা পরিললিক্ষত হয়েছে এবং এব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে। অভিযুক্ত রাসেল মিয়াকে আটক করতে পুলিশি অভিযান চলমান রয়েছে বলে জানান ওসি।

আপনার মন্তব্য লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষণ করুন

প্রকাশক ও সম্পাদক সম্পর্কে-

শফিকুল আলম শাহীন

আমি একজন ওয়েব ডেভেলপার ও সাংবাদিক। আমি দৈনিক ইত্তেফাক পত্রিকায় পূর্বধলা উপজেলা সংবাদদাতা হিসেবে কর্মরত । সেইসাথে পূর্বকণ্ঠ অনলাইন প্রকাশনার সম্পাদক ও প্রকাশক। আমার বর্তমান ঠিকানা স্টেশন রোড, পূর্বধলা, নেত্রকোনা। আমি জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে ইতিবাচক। আমার ধর্ম ইসলাম। আমি করতে, দেখতে এবং অভিজ্ঞতা করতে পছন্দ করি এমন অনেক কিছু আছে। আমি আইটি সেক্টর নিয়ে বিভিন্ন এক্সপেরিমেন্ট করতে পছন্দ করি। যেমন ওয়েব পেজ তৈরি করা, বিভিন্ন অ্যাপ তৈরি করা, রেডিও স্টেশন তৈরি করা, অনলাইন সংবাদপত্র তৈরি করা ইত্যাদি। প্রয়োজনে: ০১৭১৩৫৭৩৫০২

বারহাট্টায় সাত মাসের অন্তঃস্বত্তা গৃহবধূর লাশ উদ্ধার, শ্বশুর শ্বাশুড়ি আটক

আপডেট : ০৪:৩৯:০৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৯ জানুয়ারী ২০২০

নেত্রকোনার বারহাট্টা উপজেলার সিংধা গ্রামে ও মোহনগঞ্জের সীমানায় তমালিকা (২০) নামে এক অন্তঃস্বত্তা গৃহবধূর গলাকাটা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় পুলিশ শ্বশুর ও শ্বাশুড়িকে আটক করেছে এবং স্বামী রাসেল মিয়া পলাতক রয়েছে। লাশ উদ্ধারের পর নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায় পুলিশ। পুলিশ জানায়, পারিবারিক কলহের জেরে বৃহস্পতিবার ভোর রাতে সিংধা ইউনিয়নের সিংধা গ্রামে গৃহবধূ হত্যার ঘটনা ঘটেছে।

নিহত গৃহবধূর ভগ্নিপতি মো. হাবিবুর রহমান জানান, প্রায় দেড় বছর পূর্বে একই উপজেলার বাট্টাপাড়া গ্রামের রহিছ মিয়ার মেয়ের সাথে চরসিংধা গ্রামের আবুল হাসিম ও মাজেদার ছেলে রাসেলের বিয়ে হয়। এর আগে রাসেলের সাবেক স্ত্রী তাকে তালাক দিয়েছিলো। পরবর্তীতে আবার সাবেক স্ত্রীর সাথে সম্পর্ক হওয়ায় তমালিকার সাথে শুরু হয় স্বামীর কলহ। এরই জেরে বিভিন্ন সময়ে তমালিকাকে মারধর করে আসছিল রাসেল। এরই ধারাবাহিকতায় গত বুধবার দিনগত রাতে পরিকল্পিতভাবে এই ঘটনা ঘাটিয়েছে। রাসেল ময়মনসিংহের ভালুকা এলাকায় একটি গার্মেন্টস ফ্যাক্টরিতে চাকুরি করে। মেয়েটি সাত মাসের অন্তঃস্বত্তা ছিলো বলে জানান তিনি।

বারহাট্টা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মিজানুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় জড়িত থাকার সন্দেহে নিহতের শ্বশুর আবুল হাসিম ও শ্বাশুড়ি মাজেদা আক্তারকে থানায় আনা হয়েছে। তাদের কথায় অসামঞ্জতা পরিললিক্ষত হয়েছে এবং এব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে। অভিযুক্ত রাসেল মিয়াকে আটক করতে পুলিশি অভিযান চলমান রয়েছে বলে জানান ওসি।