নেত্রকোনা ০৪:০৯ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ৯ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নারী নেত্রী কুমুদিনী হাজং’র অন্তোষ্টিক্রীয়া সম্পন্ন

নেত্রকোনার দুর্গাপুরে আজ রোববার দুপুরে ব্রিটিশ বিরোধী ও টঙ্ক আন্দোলন তথা হাজং বিদ্রোহের একমাত্র সংগ্রামী নারী নেত্রী কমরেড কুমুদিনী হাজং (৯২) এর অন্তোষ্টিক্রীয়া সম্পন্ন হয়েছে।

কুমুদিনী হাজং দুর্গাপুর উপজেলার সীমান্তবর্তী কুল্লাগড়া ইউনিয়নের বহেড়াতলী গ্রামে পাহাড়ী অঞ্চলের এক টিলায় বসবাস করতেন। ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলন, হাজং বিদ্রোহ আন্দোলন, টংক আন্দোলন, পাকিস্তানি জুলুম বৈষম্য নিপীড়ন, মহান স্বাধীনতা আন্দোলন সহ বিভিন্ন আন্দোলনের কালের স্বাক্ষী ছিলেন তিনি।,’

চরম দারিদ্রের সঙ্গে সংগ্রাম করে এই অগ্নিযুগের বিপ্লবী নারীর জীবন অতিবাহিত হলো। যৌবনে নিজের জীবনকে তুচ্ছ করে স্বদেশ ও স্ব-জাতির জন্য সবকিছু বিসর্জন দিলেও রাষ্ট্রীয় একুশে পদক বা স্বাধীনতা পদক না পেলেও অগণিত মানুষের ভালোবাসা ও শ্রদ্ধা পেয়েছেন তিনি। শেষ সময়ে বেসরকারী উন্নয়ন সংস্থা দুঃস্থ স্বাস্থ্য তার ভরন পোষন সহ চিকিৎসা সেবার দায়-দায়িত্ব নিয়েছিলেন। ‘তার ত্যাগ ও সংগ্রামী চেতনাকে নতশিরে শ্রদ্ধা জানায় সর্বস্তরের জনগন।,

স্থানীয় সোমেশ্বরী নদীর তীরে অন্তোষ্টিক্রীয়ায় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এম রকিবুল হাসান, সিপিবি কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ডাঃ দিবালোক সিংহ, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ হক, বিরিশিরি ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর কালচারাল একাডেমির পরিচালক গীতি কবি সুজন হাজং, রেড ক্রিসেন্ট নেত্রকোনা জেলা কমিটির নেতৃবৃন্দ, সিপিবি উপজেলা কমিটির সম্পাদক রুপন কুমার সরকার সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। অন্তোষ্টিক্রীয়ার পূর্বে এই মহিয়ষী নারীর স্মৃতির প্রতি সিপিবি কেন্দ্রীয় কমিটি ও উপজেলা কমিটির পক্ষ থেকে দলীয় পতাকা তার কফিনে ধারন করে শেষ শ্রদ্ধা জানান।

তাঁর মৃত্যুতে, স্থানীয় সংসদ সদস্য মোশতাক আহমেদ রুহী, আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য রেমন্ড আরেং, সিপিবি কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য কমরেড ডাঃ দিবালোক সিংহ, ইউএনও এম রকিবুল হাসান, ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর পরিচালক গীতি কবি সুজন হাজং, অধ্যক্ষ ফারুক আহমেদ তালুকদার, দুর্গাপুর প্রেসক্লাব, সাংবাদিক সমিতি, পথ পাঠাগার, বাংলাদেশ হাজং ছাত্র সংগঠন, সিপিবি নেত্রকোনা জেলা ও দুর্গাপুর উপজেলা কমিটি সহ বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদন জানিয়েছেন। ‘মৃত্যুকালে ২ ছেলে ও ২ মেয়ে সহ অসংখ্য গ্রনগ্রাহী রেখে গেছেন।,’

আপনার মন্তব্য লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষণ করুন

প্রকাশক ও সম্পাদক সম্পর্কে-

আমি মো. শফিকুল আলম শাহীন। আমি একজন ওয়েব ডেভেলপার ও সাংবাদিক । আমি পূর্বকণ্ঠ অনলাইন প্রকাশনার সম্পাদক ও প্রকাশক। আমি জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে ইতিবাচক। আমি করতে, দেখতে এবং অভিজ্ঞতা করতে পছন্দ করি এমন অনেক কিছু আছে। আমি আইটি সেক্টর নিয়ে বিভিন্ন এক্সপেরিমেন্ট করতে পছন্দ করি। যেমন ওয়েব পেজ তৈরি করা, বিভিন্ন অ্যাপ তৈরি করা, অনলাইন রেডিও স্টেশন তৈরি করা, অনলাইন সংবাদপত্র তৈরি করা ইত্যাদি। আমাদের প্রকাশনা “পূর্বকন্ঠ” স্বাধীনতার চেতনায় একটি নিরপেক্ষ জাতীয় অনলাইন । পাঠক আমাদের সবচেয়ে বড় অনুপ্রেরনা। পূর্বকণ্ঠ কথা বলে বাঙালির আত্মপ্রত্যয়ী আহ্বান ও ত্যাগে অর্জিত স্বাধীনতার। কথা বলে স্বাধীনতার চেতনায় উদ্বুদ্ধ হতে। ছড়িয়ে দিতে এ চেতনা দেশের প্রত্যেক কোণে কোণে। আমরা রাষ্ট্রের আইন কানুন, রীতিনীতির প্রতি শ্রদ্ধাশীল। দেশপ্রেম ও রাষ্ট্রীয় আইন বিরোধী এবং বাঙ্গালীর আবহমান কালের সামাজিক সহনশীলতার বিপক্ষে পূর্বকন্ঠ কখনো সংবাদ প্রকাশ করে না। আমরা সকল ধর্মমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল, কোন ধর্মমত বা তাদের অনুসারীদের অনুভূতিতে আঘাত দিয়ে আমরা কিছু প্রকাশ করি না। আমাদের সকল প্রচেষ্টা পাঠকের সংবাদ চাহিদাকে কেন্দ্র করে। তাই পাঠকের যে কোনো মতামত আমরা সাদরে গ্রহন করব।

নারী নেত্রী কুমুদিনী হাজং’র অন্তোষ্টিক্রীয়া সম্পন্ন

আপডেট : ০৫:০৮:০০ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৪ মার্চ ২০২৪

নেত্রকোনার দুর্গাপুরে আজ রোববার দুপুরে ব্রিটিশ বিরোধী ও টঙ্ক আন্দোলন তথা হাজং বিদ্রোহের একমাত্র সংগ্রামী নারী নেত্রী কমরেড কুমুদিনী হাজং (৯২) এর অন্তোষ্টিক্রীয়া সম্পন্ন হয়েছে।

কুমুদিনী হাজং দুর্গাপুর উপজেলার সীমান্তবর্তী কুল্লাগড়া ইউনিয়নের বহেড়াতলী গ্রামে পাহাড়ী অঞ্চলের এক টিলায় বসবাস করতেন। ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলন, হাজং বিদ্রোহ আন্দোলন, টংক আন্দোলন, পাকিস্তানি জুলুম বৈষম্য নিপীড়ন, মহান স্বাধীনতা আন্দোলন সহ বিভিন্ন আন্দোলনের কালের স্বাক্ষী ছিলেন তিনি।,’

চরম দারিদ্রের সঙ্গে সংগ্রাম করে এই অগ্নিযুগের বিপ্লবী নারীর জীবন অতিবাহিত হলো। যৌবনে নিজের জীবনকে তুচ্ছ করে স্বদেশ ও স্ব-জাতির জন্য সবকিছু বিসর্জন দিলেও রাষ্ট্রীয় একুশে পদক বা স্বাধীনতা পদক না পেলেও অগণিত মানুষের ভালোবাসা ও শ্রদ্ধা পেয়েছেন তিনি। শেষ সময়ে বেসরকারী উন্নয়ন সংস্থা দুঃস্থ স্বাস্থ্য তার ভরন পোষন সহ চিকিৎসা সেবার দায়-দায়িত্ব নিয়েছিলেন। ‘তার ত্যাগ ও সংগ্রামী চেতনাকে নতশিরে শ্রদ্ধা জানায় সর্বস্তরের জনগন।,

স্থানীয় সোমেশ্বরী নদীর তীরে অন্তোষ্টিক্রীয়ায় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এম রকিবুল হাসান, সিপিবি কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ডাঃ দিবালোক সিংহ, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ হক, বিরিশিরি ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর কালচারাল একাডেমির পরিচালক গীতি কবি সুজন হাজং, রেড ক্রিসেন্ট নেত্রকোনা জেলা কমিটির নেতৃবৃন্দ, সিপিবি উপজেলা কমিটির সম্পাদক রুপন কুমার সরকার সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। অন্তোষ্টিক্রীয়ার পূর্বে এই মহিয়ষী নারীর স্মৃতির প্রতি সিপিবি কেন্দ্রীয় কমিটি ও উপজেলা কমিটির পক্ষ থেকে দলীয় পতাকা তার কফিনে ধারন করে শেষ শ্রদ্ধা জানান।

তাঁর মৃত্যুতে, স্থানীয় সংসদ সদস্য মোশতাক আহমেদ রুহী, আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য রেমন্ড আরেং, সিপিবি কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য কমরেড ডাঃ দিবালোক সিংহ, ইউএনও এম রকিবুল হাসান, ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর পরিচালক গীতি কবি সুজন হাজং, অধ্যক্ষ ফারুক আহমেদ তালুকদার, দুর্গাপুর প্রেসক্লাব, সাংবাদিক সমিতি, পথ পাঠাগার, বাংলাদেশ হাজং ছাত্র সংগঠন, সিপিবি নেত্রকোনা জেলা ও দুর্গাপুর উপজেলা কমিটি সহ বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদন জানিয়েছেন। ‘মৃত্যুকালে ২ ছেলে ও ২ মেয়ে সহ অসংখ্য গ্রনগ্রাহী রেখে গেছেন।,’