Logo
নোটিশ :
পূর্বকণ্ঠ অনলাইন প্রকাশনায় দেশের বিভিন্ন জেলা, উপজেলা ও বিশ্ববিদ্যালসহ গুরুত্বপূর্ণ স্থান থেকে সৎ ,সাহসী, মেধাবী ও পরিশ্রমী সংবাদকর্মী আবশ্যক।

নেত্রকোনায় ঈদের ছুটিতে বেড়াতে আসা গৃহবধূকে গণধর্ষণের ঘটনার প্রতিবাদে কর্মসূচি পালন

Reporter Name / ৩৬৩ বার পড়া হয়েছে
আপডেট : মঙ্গলবার, ১৩ আগস্ট, ২০১৯
dav

কে. এম. সাখাওয়াত হোসেন, নেত্রকোনা : ঈদের ছুটিতে স্ত্রীকে নিয়ে নেত্রকোনায় ফুফুর বাড়িতে বেড়াতে আসা দম্পত্তি

গণধর্ষণের শিকার হওয়ার ঘটনায় প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন করেছে ঈদে বাড়িতে আসা আগত বিভিন্ন শ্রেনি পেশার মানুষ। ঈদের পরের দিন মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১২টায় নেত্রকোনা শহরের মোক্তারপাড়া পৌরসভার মোড়ে ঈদের আনন্দকে বাদ দিয়ে বাড়িতে আসা ছাত্র, চাকুরিজীবী, ব্যাবসায়ীসহ সকলেই মানবিক নেত্রকোনার ব্যানারে “আমার মাটি আমার মা, ধর্ষকদের হবে না” এই স্লোগানে ঘন্টাব্যাপী প্রতিবাদ কর্মসূচিতে সংহতি প্রকাশ করে অংশ নেন।

এসময় নেত্রকোনা মডেল থানার ওসি মো. তাজুল ইসলামসহ টিম নৌকার নেতাকর্মীরাও অংশ নিয়ে সহমত পোষন করেছেন। এ সময় বক্তারা প্রতিবাদই হোক প্রতিরোধ এই বক্তব্যে নেত্রকোনায় ঈদের আগে সংগঠিত হওয়া ধর্ষণসহ সকল প্রকার ধর্ষণ ও শিশু নির্যাতনের ঘটনায় প্রভাবশালীদের ছত্রছায়ায় মূল আসামিদের গ্রেফতার পূর্বক আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানানো হয়।

প্রতিবাদ কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন, নেত্রকোনা প্রেসক্লাবের সম্পাদক শ্যামলেন্দু পাল, আমাদের নেত্রকোনা পত্রিকার সম্পাদক মাহফুজ স্বপন, জনউদ্যোগের আহ্বায়ক অধ্যাপক কামরুজ্জামান চৌধুরী, স্বাবলম্বীর পরিচালক স্বপন পাল, উদীচীর সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান খান, জেলা নারী নির্যাতন প্রতিরোধ কমিটির সম্পাদক আলপনা বেগম, মানবিক নেত্রকোনার মূখ্য প্রশাসক খান ফয়জুল, সাহিত্য সমাজের সাইফুল্লাহ এমরান, নারী প্রগতির কল্পনা রানী, সংস্কৃতি কর্মী শিল্পী ভট্টাচার্য্য, প্রকৃতি বাঁচাও আন্দোলনের তানভীর
জাহান চোধুরী, উন্নয়ন কর্মী মো. সুফিয়ান সেলিম, ছাত্র ইউনিয়নের সম্পাদক পার্থ প্রতিম সরকার, শিশু ছায়ার সোহাগ আহমেদ সাইফ, হিমু পাঠক আড্ডার জুয়েল রানা, ছাত্রলীগ নেতা জাকারিয়া অলি প্রমুখ।

উল্লেখ্য, গত ৯ আগস্ট ঈদুল আযহার ছুটিতে ফুফুর বাড়ি কলমাকান্দায় বেড়াতে যাওয়া দম্পতি শহরের চল্লিশা বিসিক এলাকায় সারিন্দা ফাষ্টফুড রোস্তোরায় যাত্রা বিরতিকালে স্বামীকে আটকে রেখে স্ত্রীকে হোটেল ম্যানেজারের সহযোগিতায় ৬ জন মিলে পালাক্রমে গণধর্ষণ করে। এ ঘটনায় ১০ আগষ্ট পুলিশ ভোর রাতেই হোটেল ম্যানেজারসহ ৬ জনকে আটক করে। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে ৪ জনকে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দির প্রেক্ষিতে জেলে প্রেরণ করা হয়। কিন্তু ঘটনার চারদিনেও মূল হোতা যুবলীগ নামধারী এনামূল হক সম্রাট গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

তবে গ্রেফতারকৃতদেরকে রিমান্ড চাওয়া হয়েছে ও আদালতের বিবেচনায় রিমান্ডে আনা হবে এবং অন্যান্য আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে বলে জানিয়েছেন নেত্রকোনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মো. ফখরুজ্জামান জুয়েল।

নিউজটি শেয়ার করুন..



এক ক্লিকে বিভাগের খবর

নামাজের সময় সূচি

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৫:২৮ পূর্বাহ্ণ
  • ১২:১৩ অপরাহ্ণ
  • ৪:০০ অপরাহ্ণ
  • ৫:৪০ অপরাহ্ণ
  • ৬:৫৬ অপরাহ্ণ
  • ৬:৪৩ পূর্বাহ্ণ
Website Developed By purbakantho.com