Agaminews
Dr. Neem Hakim

দুর্গাপুরে সোমেশ্বরী নদীর তীরে অবৈধ স্থাপনা গুড়িয়ে দিয়েছে উপজেলা প্রশাসন


পূর্বকন্ঠ আপডেট : অক্টোবর ১, ২০১৯, ৫:২৮ অপরাহ্ন / ১০৮৬
দুর্গাপুরে সোমেশ্বরী নদীর তীরে অবৈধ স্থাপনা গুড়িয়ে দিয়েছে উপজেলা প্রশাসন

কে. এম. সাখাওয়াত হোসেন, নেত্রকোনা :

নেত্রকোনার দুর্গাপুর উপজেলা পৌর সদরে তেরীবাজারস্থ শহর রক্ষাবাঁধ ঘেঁষে বালু ব্যবসায়ির অবৈধভাবে নির্মিত ঘরটির স্থাপনা গুড়িয়ে দিলো ভ্রাম্যমান আদালত। সোমবার (৩০ সেপ্টেম্বর) বিকেলে এ অভিযান পরিচালনা করেন সহকারি কমিশনার (ভূমি) ও নিবার্হী ম্যাজিস্ট্রেট মি. রুয়েল সাংমা।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ২নং বালু মহালের ইজারাদার সর্দার আলাল উদ্দিনের নেতৃত্বে তেরী বাজারের শহর রক্ষাবাঁধ এর উপরে একটি টিনশেড ঘর নির্মান করে। পরে স্থানীয়রা শহর রক্ষাবাঁধের উপর ঘর নির্মানের ব্যাপারে বাঁধা প্রদান করে এবং এক পর্যায়ে এ নিয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে অবগত করলে জেলা প্রশাসন ও ভূমি অফিস কর্তৃপক্ষ সোমেশ্বরী নদীর তীরে ব্লকের উপরে ঘর নির্মানের বিষয়টি সরেজমিনে পরিদর্শন করে সকল ধরনের নির্মান কার্যক্রম বন্ধের নির্দেশ দেন দুর্গাপুর উপজেলার ইউএনও ফারজানা খানম।

এ নিষেধকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে চুপিসারে সর্দার আলাল উদ্দিন ঘরটি পুনঃনির্মান করেন। এর আগেও উপজেলা প্রশাসন ঘরটি’র স্থাপনা উচ্ছেদ করার জন্য বেশ কয়েকবার মৌখিক ও নোটিশের মাধ্যমে অবগত করেন বালু ব্যবসায়িকে।

সোমবার সকালে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ফারজানা খানম ঘরটি স্থাপনা উচ্ছেদের জন্য পুনরায় বললে সর্দার আলাল উদ্দিন কোন উত্তর না দিয়ে ওই স্থান ত্যাগ করে চলে যান। ওই দিন বিকেলেই সহকারি কমিশনার (ভূমি) ও নিবার্হী ম্যাজিস্ট্রেট মি. রুয়েল সাংমার নেতৃত্বে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে প্রায় এক ঘন্টা অভিযান চালিয়ে অবৈধ স্থাপনার অর্ধপাকা টিনশেড ঘরটির নিচের অংশ ভেঙ্গে ফেলেন ।

এ সময় সহকারি কমিশনার (ভূমি) ও নিবার্হী ম্যাজিস্ট্রেট মি.রুয়েল সাংমা বলেন, এই অবৈধ স্থাপনা ধ্বংস করা হয়েছে। সকল ধরনের অবৈধ স্থাপনার দখল উচ্ছেদ, সরকারি খাস ভূমি আত্মসাৎ সহ সকল অনিয়মের বিরুদ্ধে এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে তিনি জানান।

লিড নিউজ বিভাগের আরো খবর

আরও খবর
এক ক্লিকে বিভাগের খবর