শনিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২০, ০৫:১৪ অপরাহ্ন

দুর্গাপুরে সুসং সরকারী মহাবিদ্যালয়ে ভর্তি বানিজ্যের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন

রির্পোটারের নাম:
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ২৮ অক্টোবর, ২০২০, ৮:৩৯ অপরাহ্ন
  • ৬৩ বার পঠিত

নেত্রকোনার দুর্গাপুরে সুসং সরকারী মহাবিদ্যালয়ের ভর্তি বানিজ্য বন্ধ ও শিক্ষা ব্যবস্থা উন্নত করনের লক্ষে উপজেলার বাকী ৬টি বেসরকারী কলেজের শিক্ষকগন সংবাদ সম্মেলন করেছেন। বুধবার দুপুরে দুর্গাপুর প্রেসক্লাব মিলনায়তনে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিহ হয়।

সম্মেলনে প্রভাষকগন লিখিত বক্তব্যে জানান, দুর্গাপুরে একটি মাত্র সরকারী কলেজ যেখানে, শিক্ষক ও শ্রেনীকক্ষ স্বল্পতা সহ অন্যান্য অবকাঠামো গত সমস্যা থাকার পরেও শুধুমাত্র ভর্তি বানিজ্যের উদ্দেশ্যে চাহিদার তুলনায় আসন সংখ্যা বাড়িয়ে শিক্ষার্থীর ভর্তি কার্যত্রæম চালাচ্ছেন কলেজ কৃর্তপক্ষ। যে কারনে আরো ৬টি বেসরকারী উচ্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান দেখা দিয়েছে শিক্ষার্থী সংকট। এই কলেজটি শুধুমাত্র অন্য কলেজগুলোকে ধ্বংস করা সহ আর্থিক বানিজ্য করার উদ্দেশ্যই নুন্যতম জিপিএ ২.০০ দিয়ে ভর্তি করে যাচ্ছেন। অভিভাবকগন তাদের সন্তানদের সরকারী কলেজের ভর্তির সুযোগ পেয়ে নিজেদেরকে সুভাগ্যবান মনে করলেও মুলত সঠিক শিক্ষা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন অত্র উপজেলার কোমলমতি শিক্ষার্থীরা। সরকারী কলেজটিতে শিক্ষক স্বল্পতা এত প্রকট যে, শত শত শিক্ষার্থীকে ক্লাসে পাঠদান করানো সম্পূর্ন অসম্ভব। এছাড়াও সদ্য সরকারী হওয়া পুরানো বেসরকারী অবকাঠামো দিয়েই শ্রেনী কার্যত্রæম চালাচ্ছেন কলেজ কৃর্তপক্ষ।



দেশের এই করোনা কালীন সুযোগে শ্রেনী কার্যত্রæম বন্ধ থাকায়, আভ্যন্তরিন পরীক্ষার নাম করে কৌশলে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে পরীক্ষা ফি আদায় সহ ম্যানুয়েল ভর্তি বানিজ্য করে আর্থিক সুবিধা নিয়ে যাচ্ছে কলেজ কৃর্তপক্ষ। এছাড়াও অনলাইনে পরীক্ষা নেওয়ার নাম করে প্রতি শিক্ষার্থীর কাছ থেকে ৩০০ টাকা করে নিয়েছে বলে প্রমান রয়েছে। এই ভর্তি কার্যত্রæম বন্ধ করে অন্যান্য সরকারী কলেজের নিয়ম অনুসরন করে এই সরকারী কলেজে ভর্তি করা হলে এলাকার বেসরকারী উচ্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো ছাত্র সংকটে ভূগবে না। পাশাপাশি অন্যান্য উচ্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর উন্নত অবকাঠামো ও শিক্ষক পর্যাপ্ততার কারনে ভর্তিকৃত শিক্ষার্থী যথাযথ মানসম্মত উন্নত শিক্ষা পাবে।

ইতোমধ্যে স্থানীয় সংসদ সদস্য মানু মজুমদার এ বিষয়টি নিরসনের লক্ষে সরকারী কলেজে আসন কমানো ও মান সম্মত শিক্ষা নিশ্চিত করার লক্ষে অন্যান্য সরকারী কলেজের মতো একাদশ শ্রেনীতে ভর্তিতে নুন্যতম জিপিএ ৩.০০ করার জন্য মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান মহোদয়কে সরেজমিনে তদন্ত করে দেখার জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন।



এ বিষয়ে উর্দ্ধতন কৃর্তপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করছেন কলেজ প্রভাষগন। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, দুর্গাপুর মহিলা ডিগ্রী কলেজের প্রভাষক মো. আশরাফুল ইসলাম, ঝানজাইল কারিগরি কলেজের অধ্যক্ষ মো: আবুল বাশার, ডন বস্কো কলেজের উপাধ্যক্ষ মি. রুমান রাংসা, আলহাজ¦ মাফিজ উদ্দিন তালুকদার কলেজের প্রভাষক নুর মোহাম্মদ, ঝানজাইল বি এম এন্ড টেকনিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ মো: ফারুক খান ও মধুয়াকোনা আলিম মাদ্রাসার সহকারী অধ্যাপক মো: আজিজুল ইসলাম প্রমুখ।

এ জাতীয় আরও সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এক ক্লিকে বিভাগের খবর



© All rights reserved © 2016 purbakantho
কারিগরি সহযোগিতায়- Shahin প্রয়োজনে: ০১৭১৩৫৭৩৫০২