শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর ২০২০, ০৬:১২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
পৃর্বধলায় উপ নির্বাচনী ফলাফল যেন একটি শিক্ষনীয় চিত্র দুর্গাপুরে অবৈধ ব্যান্ডরুল যুক্ত বিড়ি ব্যবসায়ীর কারাদন্ড পূর্বধলায় গণমাধ্যমকর্মীদের নিয়ে অনলাইন কর্মশালার উদ্বোধন জনসাধারণের চলাচলের রাস্তা বন্ধ করায় রাঙামাটিতে সংবাদ সন্মেলন নিরাপদ সড়ক দিবস উপলক্ষে দুর্গাপুরে মানববন্ধন দুর্গাপুরে কলেজ ছাত্রীর আত্মহত্যা গৌরীপুরে শুভ্র’র খুনীদের ফাঁসির দাবিতে মুক্তিযোদ্ধাদের মানববন্ধন শেরপুরে একতা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের দুর্নীতির বিরুদ্ধে মানববন্ধন ধোবাউড়ায় জেলা পরিষদ কর্তৃক পূজা মন্ডপে চেয়ার বিতরণ শারদীয় দুর্গোৎসব উপলক্ষে কলমাকান্দায় সরকারি অনুদান বিতরণ

ডিসি-ইউএনওকে এমপি নিক্সনের হুমকি

পূর্বকন্ঠ ডেস্ক;
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ১২ অক্টোবর, ২০২০, ১২:০০ অপরাহ্ন
  • ৪৪ বার পড়া হয়েছে
ফরিদপুরের চরভদ্রাসন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে স্থানীয় প্রশাসনের ওপর চটেছেন ফরিদপুর-৪ আসনের সংসদ সদস্য মুজিবুর রহমান চৌধুরী (নিক্সন)।

চরভদ্রাসন উপজেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের সামনে শনিবার সন্ধ্যায় এই সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে ফরিদপুর-৪ আসনের সংসদ সদস্য স্থানীয় প্রশাসনকে হুমকি দিয়ে বলেছেন, ‘ম্যাজিস্ট্রেটরা ভবিষ্যতে তার নেতাকর্মীদের কোনো কাজে বাধা দিলে হাত-পা ভেঙে দেয়া হবে।’ এমনকি নির্বাচন কমিশন ১২ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ দেয়ায় ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক (ডিসি) অতুল সরকারের কাছে কৈফিয়ত তলব ও তাকে গালাগাল করেন।

নিক্সন বলেন, প্রশাসনের মধ্যে লুকাইয়া থাকা ওই জেলা প্রশাসক এ নির্বাচনে ১২ জন ম্যাজিস্ট্রেট দিয়ে নৌকার কর্মীদের অ্যারেস্ট করছে, পিটাইছে ওই জেলা প্রশাসক।



ওই জেলা প্রশাসক একজন রাজাকার মন্তব্য করে তিনি বলেন, তা না হলে মাত্র চারটি ইউনিয়নে ১২ জন ম্যাজিস্ট্রেট দিয়ে আমার নেতা-কর্মীদের যেখানে পাইছে সেখানে আমার নেতাকর্মীদের উপর হামলা করা হয়েছে।

তিনি বলেন, আমি জেলা প্রশাসনকে সাবধান করব; আপনি ফরিদপুরে দেখেছেন অনেক বড় নেতার পতন হইছে, ওই বরকত-রুবেলের যত অন্যায়, যত দুর্নীতি তার সাথে আপনার জেলা প্রশাসনের লোক জড়িত ছিল। বরকত রুবেলের বিচারে হলে ওই জেলা প্রশাসকের বিচার হবে। কারন ওই দিপু খাঁর বালির ব্যবসার ভাগ ওই জেলা প্রশাসক পায়।



জেলা প্রশাসকের উদ্দেশে তিনি বলেন, আপনি যত বড় উপদেষ্টার নাতি হোন না কেন আপনি নিক্সন চৌধুরীর সাথে চোখ রাঙাইয়া কথা বলবেন না। আমি যদি আমার জনগণ নিয়া আপনার বিরুদ্ধে আন্দোলনে নামি, আমি যদি নেতা কর্মীদের নিয়ে নামি তবে আপনি এক মিনিট দম নেওয়ার সুযোগ পাবেন না।

এছাড়া, নির্বাচনী আচরণবিধি ভঙ্গ করায় তার একজন কর্মীকে স্বল্পসময়ের জন্য আটক করায় চরভদ্রাসন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে গালাগাল করেন নিক্সন চৌধুরী। এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চেয়েছে ফরিদপুর জেলা প্রশাসন।



রোববার দুপুরে এ বিষয়ে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে বাংলাদেশ অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশন, ফরিদপুর শাখার জরুরি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

জেলা প্রশাসক অতুল সরকারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে ফরিদপুরের ডিসি, ইউএনও ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটদের সঙ্গে অশালীন আচরণ এবং দুর্ব্যবহার করার বিষয়ে তীব্র ক্ষোভ ও নিন্দা জানানো হয়।

এতে বলা হয় শনিবার অনুষ্ঠিত নির্বাচনে নিক্সন চৌধুরীর সমর্থিত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী ১১ হাজারের বেশি ভোটে বিজয় লাভ করেন। কিন্তু রাত সাড়ে ৮টায় নির্বাচন পরবর্তী জনসভায় নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন করে বিজয়ী প্রার্থী মো. কাওছার ও সংসদ সদস্য এবং তার অনুসারীরা ১২ জন ম্যাজিস্ট্রেট মোতায়েনের কথা উল্লেখ করে জেলা প্রশাসনের বিরুদ্ধে চরম বিদ্বেষমূলক কথাবার্তা বলেন।



নিক্সন চৌধুরীর অনুসারীরা বিভিন্ন কুরুচিপূর্ণ স্লোগান দেন যা একজন সংসদ সদস্য বা সুস্থ মস্তিষ্কের মানুষের পক্ষে অকল্পনীয়।

সভায় উপস্থিত সবাই একমত হন যে, সরকারের সিদ্ধান্ত ও উন্নয়ন কর্মকাণ্ড বাস্তবায়নকারী প্রতিষ্ঠান জেলা প্রশাসনের প্রতি এহেন আচরণ অত্যন্ত অবমাননাকর।

বাংলাদেশ জার্নাল/এমএম

 

এ জাতীয় আরও সংবাদ
এক ক্লিকে বিভাগের খবর

©২০২০ সর্বস্তত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | পূর্বকন্ঠ
কারিগরি সহযোগিতায়- Shahin প্রয়োজনে: ০১৭১৩৫৭৩৫০২

Notice: Undefined index: config_theme in /home/purbakantho/public_html/wp-content/themes/LatestNews/include/root.php on line 33
themesba-lates1749691102