শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর ২০২০, ০৬:৩৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
পৃর্বধলায় উপ নির্বাচনী ফলাফল যেন একটি শিক্ষনীয় চিত্র দুর্গাপুরে অবৈধ ব্যান্ডরুল যুক্ত বিড়ি ব্যবসায়ীর কারাদন্ড পূর্বধলায় গণমাধ্যমকর্মীদের নিয়ে অনলাইন কর্মশালার উদ্বোধন জনসাধারণের চলাচলের রাস্তা বন্ধ করায় রাঙামাটিতে সংবাদ সন্মেলন নিরাপদ সড়ক দিবস উপলক্ষে দুর্গাপুরে মানববন্ধন দুর্গাপুরে কলেজ ছাত্রীর আত্মহত্যা গৌরীপুরে শুভ্র’র খুনীদের ফাঁসির দাবিতে মুক্তিযোদ্ধাদের মানববন্ধন শেরপুরে একতা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের দুর্নীতির বিরুদ্ধে মানববন্ধন ধোবাউড়ায় জেলা পরিষদ কর্তৃক পূজা মন্ডপে চেয়ার বিতরণ শারদীয় দুর্গোৎসব উপলক্ষে কলমাকান্দায় সরকারি অনুদান বিতরণ

পাথরঘাটা ইলিশে সয়লাব

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক :
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১০:১৮ পূর্বাহ্ন
  • ৭৩ বার পড়া হয়েছে

একের পর এক ট্রলার ঘাটে ভিড়ছে। ট্রলারের ডেরা থেকে ইলিশ গুনে গুনে ঝাঁপিতে দিচ্ছে জেলেরা। ঝাঁপি ভরতেই শ্রমিকরা দৌঁড়ে সোজা বিএফডিসির শেডে। সেখানে স্তূপ করে রাখা হচ্ছে ইলিশ।

একটি ট্রলারের ইলিশ শেডে স্তূপ করার পর মানুষ ভিড় করছে। তাদের কেউ পাইকার ব্যবসায়ী, কেউ বা উৎসুক দর্শক। শুরু হয় হাঁকডাক। নিলাম ডাকা হয়, সর্বোচ্চ দামে কিনে নেন পাইকাররা। সোমবার (৭ সেপ্টেম্বর) বরগুনার পাথরঘাটা মৎস্য অবতরণ কেন্দ্র (বিএফডিসি) ছিল এমনই উৎসবমুখর।

জেলেরা ইলিশের হিসাব রাখেন সংখ্যায়। এবারের খ্যাপে কত ইলিশ পেয়েছেন- জানতে চাইলে সোজা বলে দেন ৫ হাজার বা ১০ হাজার। ট্রলার থেকে ডাঙায় তোলার পর ইলিশের পরিমাণ নিরুপণ করা হয় ওজনে।

৬৫ দিনের নিষেধাজ্ঞা শেষে ২৪ জুলাই থেকে মাছ ধরতে সাগরে যাওয়ার অনুমতি মেনে জেলেদের। কিন্তু তখন ইলিশ ধরা পড়েনি। গত কয়েক দিন ধরা পড়ছে। এখন দীর্ঘদিন বসে থাকায় যে ক্ষতি হয়েছে, তা কাটিয়ে উঠার চেষ্টা করছে তারা।

পাথরঘাটা মৎস্য অবতরণ কেন্দ্রের ঘাটে কক্সবাজার, ভোলা, নোয়াখালী, পটুয়াখালীর বেশ কয়েকটি ট্রলার নোঙর করেছে। কথা হয় এফবি মায়ের দোয়া ট্রলারের মাঝি সালামের সঙ্গে। তিনি বলেন, এলাকায় না গিয়ে এখানে এসেছেন। দ্রুত মাছ বিক্রি করে আবার সাগরে যাবেন। এখন ইলিশ ধরা পড়ছে। যতটা পারেন ধরার চেষ্টা করবেন।

উপকূলীয় ট্রলার মালিক সমিতির সভাপতি মোস্তফা চৌধুরী বলেন, রোববার (৬ সেপ্টেম্বর) সকাল থেকে সোমবার (৭ সেপ্টেম্বর) সকাল পর্যন্ত এই ঘাটে অর্ধশতাধিক ট্রলার মাছ বোঝাই করে ফিরেছে। এসব ট্রলার থেকে প্রায় ১২ হাজার মণ ইলিশ এসেছে।

বিএফডিসিতে ঘুরে দেখা গেছে, ১ কেজি ওজনের ইলিশ ২৮ থেকে ৩০ হাজার টাকা মণ দরে বিক্রি হচ্ছে। আর ৮শ’ গ্রাম থেকে ১ কেজি ইলিশের মণ ২২ থেকে ২৫ হাজার টাকা। ৫শ’ গ্রামের নিচের ইলিশ বিক্রি হচ্ছে ১২ থেকে ১৪ হাজার টাকা মণে।

বরগুনার স্থানীয় বাজারেও পর্যাপ্ত ইলিশ উঠছে। বাজারে মাইকে প্রচার করেও কেউ কেউ ইলিশ বিক্রি করছে। সোমবার (৭ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় বরগুনার জেলা শহরের মাছ বাজারে গিয়ে দেখা যায়, ১ কেজি সাইজের ইলিশ প্রতিকেজি ৬০০ টাকা দরে, মাঝারি সাইজের ইলিশ ৪০০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। ক্রেতারাও ভিড় করে কিনছে।

Source link

এ জাতীয় আরও সংবাদ
এক ক্লিকে বিভাগের খবর

©২০২০ সর্বস্তত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | পূর্বকন্ঠ
কারিগরি সহযোগিতায়- Shahin প্রয়োজনে: ০১৭১৩৫৭৩৫০২

Notice: Undefined index: config_theme in /home/purbakantho/public_html/wp-content/themes/LatestNews/include/root.php on line 33
themesba-lates1749691102