রবিবার, ০৭ জুন ২০২০, ০৩:২৩ অপরাহ্ন

আমাদের পূর্বকন্ঠ ওয়েবসাইটে প্রবেশ করার জন্য আপনাকে স্বাগতম। আমাদের নিয়মিত আপডেট খবর পেতে এখনই ওয়েব পেজটি সাবস্ক্রাইব করুন। আপনার আশপাশে ঘটে যাওয়া খবরা খবর জানাতে আমাদের ফোন করুন-০১৭১৩৫৭৩৫০২ এই নাম্বারে।

আমরা কতটা সচেতন হতে পেরেছি

জেলি আক্তার:
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২১ মে, ২০২০, ২:১৬ অপরাহ্ন
  • ৫৮ বার পড়া হয়েছে

বর্তমান বিশ্ব জুড়ে ছড়িয়ে পড়েছে করোনা ভাইরাস। এই পরিস্থিতিতে বিপর্যস্ত মানব জীবন। এই ভাইরাসের কারণে প্রতিদিন বিশ্বে হাজার হাজার লোক মৃত্যুবরণ করছে। এই ভাইরাসের কারণে আমাদের দেশে আক্রান্তের সংখ্যা ২০ হাজার ছাড়িয়ে গেছে এবং মারা গেছে ৩০০র বেশি মানুষ। বর্তমানে সারা বিশ্বে করোনা ভাইরাসে মৃত্যুর সংখ্যা ৩ লাখ ছাড়িয়েছে। তবুও আমরা সচেতন হচ্ছি না কেন?

বর্তমান পরিস্থিতি বিবেচনা করলে আমরা উপলব্ধি করতে পারব কিছু মানুষের মূল্যবোধের কতটা অভাব। কথায় আছে আপন ভালো পাগলেও বোঝে কিন্তু আমরা কতটুকু বুঝছি? একজন পাগল যদি নিজের ভালো বোঝে তবে আমরা সুস্থ মস্তিষ্কের মানুষগুলো কেন বুঝতে পারছি না? মূল্যবোধ সম্পর্কে আমাদের ধারণা কতটুকু? ভালোমন্দ ঠিকবেঠিক সম্পর্কে আমরা কতটা সচেতন? এসব এখন সময়ের প্রশ্ন।

করোনা ভাইরাস প্রতিহত করতে বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ জনসমাগম এড়িয়ে চলার কিন্তু আমরা তা কতটা মানছি? আমরা স্বাস্থ্যবিধি কতটা মানতে পেরেছি? বর্তমান পরিস্থিতি বিবেচনা করলে দেখা যায় এখন ঈদ উপলক্ষে হাটেবাজারে উপচে পড়া ভিড় কেনাকাটা করতে শপিংমলগুলোতেও চলেছে জমজমাট ব্যবসা। কিন্তু আমরা কি একবারও ভেবে দেখেছি এর পরিণাম কতটা ভয়াবহ রুপ ধারণ করতে পারে? আজ আমাদের কাছে কেনাকাটা করাটাই জরুরি হয়ে দাঁড়িয়েছে কিন্তু আমরা কি একবারও ভাবছি জীবনের চাইতে কি কেনাকাটা করাটাই জরুরি এখন এই মুহূর্তে বিলাসিতা কি জরুরি? বিলাসিতা করার সময় কি এখন?

আমরা কি উপলব্ধি করতে পারি না বর্তমান পরিস্থিতি আমাদের কতটা বিপদ ডেকে আনতে পারে। আজ আপনি জনসমাগম এড়িয়ে চলছেন না, নিয়মকানুন মানছেন না, কারো কথার তোয়াক্কা করছেন না, আচ্ছা আপনি না হয় আপনার জীবনের মূল্য নাই দিলেন কিন্তু আপনার কি মনে পড়ে না আপনার পরিবারের আপনজনদের কথা? আমরা কি পারি না কিছু দিন নিয়ম মেনে ঘরে থাকতে। শুধু শহর কেন এখন গ্রাম অঞ্চলের মানুষ তো একি পথে হাঁটছে। দিব্যি হাটবাজার সব চলছে। আচ্ছা একটা চারাগাছের কথা ধরুন, চারা গাছকে একটা খুঁটি কতদিন দাঁড়িয়ে থাকতে সাহায্য করবে হয়তো কিছু দিন তারপর হয়তো খুঁটি নষ্ট হয়ে যাবে, নুয়ে পড়বে তাকে হয়তো আবার খুঁটি দেওয়া হবে, এভাবে হয়তো কিছুদিন চলবে কিন্তু যখন চারা গাছ শক্ত হয়ে যাবে তখন আর প্রয়োজন হবে না সেই খুঁটির। আর দিনের পর দিন বছরের পর বছর খুঁটি পরিবর্তন করতে হয় তবে দেখা যাবে এ সময় খুঁটি কেউ পরিবর্তন করবে না নুয়ে থাকতে থাকতে নানান উপদ্রবে গাছ নষ্ট হয়ে যাবে। এখন আপনি ভাবুন আপনাকে কতদিন পাহাড়া দিয়ে জনসমাগম থেকে দূরে রাখা যাবে, এক দিন দুই দিন এক সপ্তাহ কিংবা এক মাস; তারপরও যদি আপনি নিজে সচেতন না হন তাহলে ক্ষতি আপনার। ঠিক খুঁটি ছাড়া গাছের মতো আপনিও শেষ হয়ে যাবেন, তবে হ্যাঁ আপনি যদি সচেতন না হন তাহলে আপনি ক্ষতিগ্রস্ত হবেন, আপনার পরিবার ক্ষতিগ্রস্ত হবে। আর সচেতন হলে আপনি আপনার পরিবার সবাই সুরক্ষিত থাকবে। এখন সিদ্ধান্ত আপনার ঘরে থাকবেন নাকি দিব্যি ঘুরবেন।

আসুন অন্তত নিজেদের কথা ভেবে নিজের পরিবার পরিজনদের কথা ভেবে কিছুদিন ঘরে থাকি, সচেতন হই। শপিং জরুরি নয়, জরুরি আপনার, আমার, আমাদের, সচেতনতা। এখন ভেবে দেখার সময় আমরা কতটা সচেতন হতে পেরেছি।

লেখক :শিক্ষার্থী, উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগ,

কুড়িগ্রাম সরকারি কলেজ

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও সংবাদ

এক ক্লিকে বিভাগের খবর

নামাজের সময় সূচি

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৩:৪৬ পূর্বাহ্ণ
  • ১১:৫৯ পূর্বাহ্ণ
  • ৪:৩৫ অপরাহ্ণ
  • ৬:৪৬ অপরাহ্ণ
  • ৮:১১ অপরাহ্ণ
  • ৫:০৯ পূর্বাহ্ণ



© All rights reserved © 2020 purbakantho
কারিগরি সহযোগিতায়-SHAHIN প্রয়োজনে:০১৭১৩৫৭৩৫০২ purbakantho
themesba-lates1749691102