বৃহস্পতিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২১, ০৭:২৫ পূর্বাহ্ন বাংলা বাংলা English English
ঘোষনা :
৥ সমসাময়িক বিষয় নিয়ে আপনিও চাইলে পূর্বকন্ঠ অনলাইন প্রকাশনায় লিখতে পারেন কলাম অথবা মতামত ৥ আপনার গঠনমূলক লেখা ছাপা হবে যথাযথ গুরুত্ব দিয়ে ৥ অবশ্যই সম্পাদনা সহকারে ৥ প্রয়োজনে : ০১৭১৩৫৭৩৫০২ ৥
কুষ্টিয়ায় অগ্নিদগ্ধ অন্তঃসত্ত্বা জুলেখার মৃত্যু
/ ১৪২ বার পড়া হয়েছে।
আপডেট : শনিবার, ৯ মে, ২০২০, ১:১৬ পূর্বাহ্ন

[ad_1]

টানা ১০ দিন মৃত্যু যন্ত্রণায় ছটফট করে হেরে গেলেন ঢাকা মেডিক্যালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসা নেওয়া অগ্নিদগ্ধ অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূ জুলেখা খাতুন (৩৫)।

কুষ্টিয়া মডেল থানার ওসি গোলাম মোস্তফা মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, শুক্রবার (৮ মে) দুপুরে জুলেখার মৃত্যু হয়েছে।  সন্ধ্যায় তার লাশ কুষ্টিয়ায় আনা হয়।  মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে।

কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার ডা. তাপস কুমার সরকার জানান, রোগীর দেহের প্রায় ৮০% ভাগ দগ্ধ ছিলো।  ঘটনার দিন গত ২৯ এপ্রিল রোগীকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিক্যালের বার্ন ইউনিটে নেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছিলো।

প্রসঙ্গত, ২৯ এপ্রিল সকালে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে শহরের কমলাপুর এলাকার বজলুল হকের বাড়ির ভাড়াটিয়া মেহেদী হাসানের স্ত্রী জুলেখা খাতুনের শরীরে পেট্রল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয় বাড়ির মালিকের ছেলে রোকনুজ্জামান রনি।  পরে প্রতিবেশীরা ছুটে এসে অগ্নিদগ্ধ ওই গৃহবধূকে উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন।  এরপর তাকে মুমূর্ষু অবস্থায় ঢাকা মেডিক্যালের বার্ন ইউনিটে পাঠানো হয়।

এই ঘটনার দিনই সন্ধ্যায় শহরের কমলাপুর এলাকা থেকে রনিকে আটক করে পুলিশ।

কুষ্টিয়া/কাঞ্চন /সাইফ

[ad_2]

Source link

Print Friendly, PDF & Email
এ জাতীয় আরও সংবাদ
আমাদের ফেসবুক পেইজ