রবিবার, ০৭ জুন ২০২০, ০২:১৭ অপরাহ্ন

আমাদের পূর্বকন্ঠ ওয়েবসাইটে প্রবেশ করার জন্য আপনাকে স্বাগতম। আমাদের নিয়মিত আপডেট খবর পেতে এখনই ওয়েব পেজটি সাবস্ক্রাইব করুন। আপনার আশপাশে ঘটে যাওয়া খবরা খবর জানাতে আমাদের ফোন করুন-০১৭১৩৫৭৩৫০২ এই নাম্বারে।

কুষ্টিয়ার ছেউড়িয়ায় আজ থেকে শুরু হচ্ছে তিনদিন ব্যাপি লালন স্মরণোৎসব

নজরুল ইসলাম মুকুল, কুষ্টিয়া :
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ৮ মার্চ, ২০২০, ২:৫৯ অপরাহ্ন
  • ৭৫ বার পড়া হয়েছে

মরমী সাধক বাউল শিরোমণি ফকির লালন সাঁইয়ের স্মরণোৎসব ২০২০ কুষ্টিয়ার কুমারখালীর ছেঁউড়িয়ায় আজ রবিবার থেকে শুরু হচ্ছে তিনদিন ব্যাপী বাউল স্মরণোৎসব ।

প্রতি বছরের মত এ বছরও কুষ্টিয়ার জেলা প্রশাসন ও লালন একাডেমী ৩ দিন ব্যাপী অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে।

অনুষ্ঠানের মধ্যে রয়েছে, ৮, ৯ ও ১০ মার্চ ২০২০ রবি, সোম ও মঙ্গলবার প্রতিদিন সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টা থেকে লালনের কর্মময় জীবন ও দর্শন নিয়ে আলোচনা সভা, লালনের জীবনীর উপর আলোচনা শেষে রাতভর চলবে লালন সংগীতানুষ্ঠান।

১ম দিন ৮ মার্চ রবিবার প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থাকবেন সাংস্কৃতিক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ এমপি, ২য় দিন প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থাকবেন খুলনা বিভাগীয় কমিশনার ড. মু: আনোয়ার হোসেন হাওলাদার, শেষ দিনে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থাকবেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন এমপি।
এ উৎসবকে ঘিরে ছেঁউড়িয়ার মরা কালি নদীর তীরে লালনের আখড়া বাড়িতে বাউল ভক্ত আর সাধুদের হাট বসছে। ইতিমধ্যে দেশ বিদেশের হাজারো বাউল, সাধু-গুরু ও ভক্ত অনুসারীরা এসে জড় হতে শুরু করেছেন লালন আখড়া বাড়িতে।

লালনের ভক্ত অনুসারীরা প্রতিবছর ছেঁউড়িয়ার আখড়া বাড়িতে নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে এ দিনটি পালন করে আসছেন। সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় স্থানীয় জেলা প্রশাসন ও লালন একাডেমী এবারও ৩ দিনের অনুষ্ঠান মালার আয়োজন করেছে ।

বিশাল এ আয়োজনের প্রস্তুতি ইতিমধ্যে শেষ হয়েছে। উৎসবে যোগ দিতে এরই মধ্যে দেশের নানা প্রান্ত থেকে ছুটে এসেছেন সাধু-গুরু, বাউল, ভক্তরা।
৩ দিন ব্যাপী এ উৎসব শেষ হবে আগামী ১০ মার্চ বাংলা ২৬ ফাল্গুন।
আয়োজকরা মনে করেন লালনের অহিংসার বাণী বিশ্বময় ছড়িয়ে দিতে পারলেই কেবল সার্থক হবে সব আয়োজন।

তবে লালন স্মরন উৎসবকে ঘিরে স্থানীয়রা অনেকেই ভীন্নভীন্ন মতামত দিচ্ছেন। কেউ কেউ মনে করছেন মারমী দার্শনিক লালন ছিলেন একজন সমাজ প্রতিষ্ঠার অগ্রদূত, এমন একজন গুনী মানুষের জন্ম কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে হওয়ায় গর্বিত। তবে কেউ কেউ মনে করছেন এ উৎসবকে কেন্দ্র করে শুধু ছেউড়িয়াতে নয় সারা জেলা জুড়ে বাড়ছে মাদকের ভয়াবহ প্রভাব।

লালন মেলাকে ঘিরে বিশেষ করে গাঁজায় ছয়লাব হয়ে পরে কুমারখালী সহ সারা জেলা। যার ফলে খুব সহজেই নেশায় আসক্ত হয়ে পড়ছে যুবসমাজ। এলাকাবাসীর দাবি মাদক নিয়ন্ত্রনে রেখে এই উৎসব আয়োজন করা হোক।
প্রথম দিন রাতে লালনভক্ত সাধুদের জন্য প্রচলিত নিয়ম অনুযায়ী অধিবাস সেবা, দ্বিতীয় দিন সকালে বাল্যসেবা ও দুপুরে পূর্ণ সেবা প্রদান করা হবে।

আসন্ন লালন স্মরণোৎসব উপলে লালনের আখড়ায় দেশ বিদেশ হতে হাজার হাজার ভক্ত, সাধু ও দর্শনার্থীদের আগমন শুরু হয়েছে ইতিমধ্যে। কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসক মোঃ আসলাম হোসেন মেলার নিরাপত্তা ব্যবস্থা প্রসঙ্গে বলেন, “লালন স্মরণোৎসব ও গ্রামীন মেলাকে কেন্দ্র করে মাজার প্রাঙ্গন ও তার আশেপাশের এলাকায় নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। পুরো মাজার এলাকা সিসি ক্যামেরার আওতায় থাকবে।

জেলা পুুলিশ, র‌্যাব, গোয়েন্দা পুলিশ এর পাশাপাশি সাদা পোশাকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য মোতায়েন থাকবে। সেই সাথে আমাদের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটগণ সেখানে দায়িত্বে থাকবে”।

 

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও সংবাদ

এক ক্লিকে বিভাগের খবর

নামাজের সময় সূচি

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৩:৪৬ পূর্বাহ্ণ
  • ১১:৫৯ পূর্বাহ্ণ
  • ৪:৩৫ অপরাহ্ণ
  • ৬:৪৬ অপরাহ্ণ
  • ৮:১১ অপরাহ্ণ
  • ৫:০৯ পূর্বাহ্ণ



© All rights reserved © 2020 purbakantho
কারিগরি সহযোগিতায়-SHAHIN প্রয়োজনে:০১৭১৩৫৭৩৫০২ purbakantho
themesba-lates1749691102