নেত্রকোনা ০২:৪৯ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

৫৫ মেডিকেল কলেজের মধ্যে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজের অনন্য সাফল্য

  • আপডেট : ১২:২৫:৪৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯
  • ১২৬১ বার পঠিত

সামসুল হক জুৃয়েল, গাজীপুর প্রতিনিধি: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে ৫৫টি মেডিকেল কলেজের মধ্যে এমবিবিএস দ্বিতীয় পেশাগত পরীক্ষায় গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দিন আহম্মদ মেডিকেল কলেজ অনন্য সাফল্য অর্জন করেছে।

গত মে মাসে অনুষ্ঠিত এ এমবিবিএস পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ অভূতপূর্ণ সাফল্য অর্জন করেছ।

৫৫টি মেডিকেল কলেজের ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজের ছাত্রী যারিন তাসনিম হুদা প্রথম স্থান এবং সামিউন ফাতেহা ইরা তৃতীয় স্থান লাভ করেছে।

এছাড়া এ কলেজ থেকে আরো ৮জন ছাত্র-ছাত্রী অনার্স মার্ক পেয়েছে। কলেজটিতে পাসের হার শতকরা ৮৬।

উল্লেখ্য ২০১৩ সালে প্রতিষ্ঠিত মাত্র ৬ বছরেরর মধ্যে এ কলেজ থেকে এমন অভূতপূর্ব ফলাফল অর্জন নজিরবিহীন।

বিশেষ করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ, ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ, স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ ও শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজের মতো প্রাচীন ও সুনামধন্য মেডিকেল কলেজকে পেছনে ফেলে প্রথম স্থান অর্জন করা এ কলেজটি কৃতিত্ব বহন করে।

বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় পেশাগত এমবিবিএস পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশের পর কলেজের কৃতি শিক্ষার্থী ও শিক্ষকদের মধ্যে আনন্দ উল্লাস করতে দেখা গেছে।

এ ব্যাপারে কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. মো. আসাদ হোসেন জানান, শিক্ষকদের দক্ষতা ও নিরলস কর্মপ্রচেষ্টা আর ছাত্র-ছাত্রীদের একাগ্রতার ফলেই এমন ফলাফল অর্জন সম্ভব হয়েছে। এজন্য তিনি কলেজের ছাত্র-ছাত্রী ও সংশ্লিষ্টদের অভিনন্দন জানান।

আপনার মন্তব্য লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষণ করুন

প্রকাশক ও সম্পাদক সম্পর্কে-

শফিকুল আলম শাহীন

আমি একজন ওয়েব ডেভেলপার ও সাংবাদিক। আমি দৈনিক ইত্তেফাক পত্রিকায় পূর্বধলা উপজেলা সংবাদদাতা হিসেবে কর্মরত । সেইসাথে পূর্বকণ্ঠ অনলাইন প্রকাশনার সম্পাদক ও প্রকাশক। আমার বর্তমান ঠিকানা স্টেশন রোড, পূর্বধলা, নেত্রকোনা। আমি জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে ইতিবাচক। আমার ধর্ম ইসলাম। আমি করতে, দেখতে এবং অভিজ্ঞতা করতে পছন্দ করি এমন অনেক কিছু আছে। আমি আইটি সেক্টর নিয়ে বিভিন্ন এক্সপেরিমেন্ট করতে পছন্দ করি। যেমন ওয়েব পেজ তৈরি করা, বিভিন্ন অ্যাপ তৈরি করা, রেডিও স্টেশন তৈরি করা, অনলাইন সংবাদপত্র তৈরি করা ইত্যাদি। আমার সম্পাদনায় প্রকাশিত পূর্বকন্ঠ পত্রিকাটি স্বাধীনতার চেতনায় একটি নিরপেক্ষ জাতীয় অনলাইন । পাঠক আমাদের সবচেয়ে বড় অনুপ্রেরনা। পূর্বকণ্ঠ কথা বলে বাঙালির আত্মপ্রত্যয়ী আহ্বান ও ত্যাগে অর্জিত স্বাধীনতার। কথা বলে স্বাধীনতার চেতনায় উদ্বুদ্ধ হতে। ছড়িয়ে দিতে এ চেতনা দেশের প্রত্যেক কোণে কোণে। আমরা রাষ্ট্রের আইন কানুন, রীতিনীতির প্রতি শ্রদ্ধাশীল। দেশপ্রেম ও রাষ্ট্রীয় আইন বিরোধী এবং বাঙ্গালীর আবহমান কালের সামাজিক সহনশীলতার বিপক্ষে পূর্বকন্ঠ কখনো সংবাদ প্রকাশ করে না। আমরা সকল ধর্মমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল, কোন ধর্মমত বা তাদের অনুসারীদের অনুভূতিতে আঘাত দিয়ে আমরা কিছু প্রকাশ করি না। আমাদের সকল প্রচেষ্টা পাঠকের সংবাদ চাহিদাকে কেন্দ্র করে। তাই পাঠকের যে কোনো মতামত আমরা সাদরে গ্রহন করব। প্রয়োজনে: ০১৭১৩৫৭৩৫০২

৫৫ মেডিকেল কলেজের মধ্যে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজের অনন্য সাফল্য

আপডেট : ১২:২৫:৪৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯

সামসুল হক জুৃয়েল, গাজীপুর প্রতিনিধি: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে ৫৫টি মেডিকেল কলেজের মধ্যে এমবিবিএস দ্বিতীয় পেশাগত পরীক্ষায় গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দিন আহম্মদ মেডিকেল কলেজ অনন্য সাফল্য অর্জন করেছে।

গত মে মাসে অনুষ্ঠিত এ এমবিবিএস পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ অভূতপূর্ণ সাফল্য অর্জন করেছ।

৫৫টি মেডিকেল কলেজের ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজের ছাত্রী যারিন তাসনিম হুদা প্রথম স্থান এবং সামিউন ফাতেহা ইরা তৃতীয় স্থান লাভ করেছে।

এছাড়া এ কলেজ থেকে আরো ৮জন ছাত্র-ছাত্রী অনার্স মার্ক পেয়েছে। কলেজটিতে পাসের হার শতকরা ৮৬।

উল্লেখ্য ২০১৩ সালে প্রতিষ্ঠিত মাত্র ৬ বছরেরর মধ্যে এ কলেজ থেকে এমন অভূতপূর্ব ফলাফল অর্জন নজিরবিহীন।

বিশেষ করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ, ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ, স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ ও শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজের মতো প্রাচীন ও সুনামধন্য মেডিকেল কলেজকে পেছনে ফেলে প্রথম স্থান অর্জন করা এ কলেজটি কৃতিত্ব বহন করে।

বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় পেশাগত এমবিবিএস পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশের পর কলেজের কৃতি শিক্ষার্থী ও শিক্ষকদের মধ্যে আনন্দ উল্লাস করতে দেখা গেছে।

এ ব্যাপারে কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. মো. আসাদ হোসেন জানান, শিক্ষকদের দক্ষতা ও নিরলস কর্মপ্রচেষ্টা আর ছাত্র-ছাত্রীদের একাগ্রতার ফলেই এমন ফলাফল অর্জন সম্ভব হয়েছে। এজন্য তিনি কলেজের ছাত্র-ছাত্রী ও সংশ্লিষ্টদের অভিনন্দন জানান।