মঙ্গলবার ১৯শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৩রা কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

স্বপ্ন আমার আকাশ সমান : পাতায় পাতায় মজার ছড়া

 |  আপডেট ১২:৫১ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১ | প্রিন্ট  | 118

স্বপ্ন আমার আকাশ সমান : পাতায় পাতায় মজার ছড়া

হাসিন মোয়াজ্জেম: একবিংশ শতাব্দীর পথচলা শুরু হয়েছে প্রাযুক্তিক উৎকর্ষতায়। বলা হচ্ছে, এই প্রযুক্তিগত উন্নয়নের মাধ্যমেই চতুর্থ বিপ্লব সংঘটিত হবে। ওই সংঘটিতব্য শিল্প বিপ্লবের মধ্য দিয়ে দুনিয়া আরও গতি পাবে। মানুষের ছুটে চলার গতি বাড়বে। অস্থির থেকে অস্থিরতর হবে একবিংশের পৃথিবী। বর্তমান পৃথিবীর অবিচ্ছেদ্য অংশ আমাদের শিশু-কিশোরেরা। আজকাল জন্মের পরপরই কোমলমতি শিশুর হাতে উঠে যাচ্ছে কিছু যন্ত্র। মুঠোফোন, ট্যাব, ভিডিও গেমস সামগ্রী এর মধ্যে অন্যতম। এসব যন্ত্র মাত্রাতিরিক্ত ব্যবহারের ফলে শিশু-কিশোরদের মানসিক বিকাশ বাধাগ্রস্ত হচ্ছে এ কথা চিকিৎসা বিজ্ঞানের। পক্ষান্তরে শিশু-কিশোররা যদি বইয়ের জগতে বিচরণ করে তবে তাদের মানসিক বিকাশ ও উৎকর্ষতার সকল দুয়ার খুলে যায়। শিশু-কিশোরদের পাঠ উপযোগী এমনই একটি ছড়াগ্রন্থ সঞ্জয় সরকারের ‘স্বপ্ন আমার আকাশ সমান’। প্রকাশনা সংস্থা বাবুই থেকে প্রকাশিত হয়েছে সম্প্রতি। ছড়া মানেই তো অল্প কথায় বেশি বলা।

কঠিন কথা সহজে বলা বা বোঝা। ছড়া হল নির্যাস, সার কথা। এ বইয়ের প্রতিটি ছড়া এর স্ব-মহিমায় উজ্জ্বল, যেমন ‘গুণধর এক ছাত্র হল হারুণ/ ধরলে পড়া বলেÑ আমায় মারুণ/ ভাল্লাগে না খেলতে যাব, ছাড়–ন/ স্যার হেসে কন দারুণ বাবা দারুণ’ (ছড়া: গুণধর) কিংবা ‘শীত মানে তো পরীক্ষা শেষ/ ইচ্ছেমতো ছুটি/ সকালবেলার মিষ্টি রোদে/ কাঁথায় লুটোপুটি’ (ছড়া: শীত মানে)। শিশু-কিশোরদের পাঠ উপযোগী করে লেখা নিরীক্ষাধর্মী ছড়াগুলো বিষয়-বৈচিত্রে কিছুটা ব্যতিক্রমধর্মী মনে হয়েছে। লাইনের পর লাইনের বিবরণ, উপস্থাপনা বা এর প্রকাশভঙ্গিতে ছড়াকারের মুন্সিয়ানা চোখে পড়ে বেশ। যেমন বাঙালির স্বাধীনতা যুদ্ধের মহানায়ক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কথা ছড়ায় ওঠে এসেছে এভাবে: ‘বুক জুড়ে তার স্বদেশ ছিল/ হৃদয় জুড়ে সূর্য/ তার ডাকেইতো গর্জে ওঠে/ দ্রোহের রণতূর্য’ (ছড়া: টুঙ্গিপাড়ার সেই ছেলেটি) কিংবা ‘মুজিব মানে মহান নেতার অমর কীর্তিগাথা/ মুজিব মানে ইতিহাসের ঝলমলানো পাতা’ (ছড়া: মুজিব মানে)।  আজকাল সবাই লিখছেন ছড়া। বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় সেগুলো প্রকাশ পাচ্ছে। কিন্তু ভালো ছড়া বলতে যা বোঝায় তা কই? চোখে পড়ে কিছু গৎবাধা লাইন আর কিছু গতানুগতিক বিষয়বস্তু। পাঠকের হৃদয়ে নাড়া দেবে বা হৃদয়কে আলোড়িত করবে সেরকম ছড়া লেখা হচ্ছে খুব কমই।


এদিক থেকে সৃজনশীল চর্চার মধ্য দিয়ে যে যাত্রা শুরু করেছেন ছড়াকার সঞ্জয় সরকার; তার এই প্রচষ্টো অব্যাহত থাকলে আমাদের ছড়াসাহিত্য বিভিন্ন কোণ থেকে সমৃদ্ধ হবে বলেই ধরে নেয়া যায়। নির্ভুল ছন্দমাত্রা ও তাল-লয়ের প্রয়োগ ঘটিয়ে তিনি তার ছড়াকে শানিত করেছেন। বইয়ের ছড়াগুলো পাঠ করতে গেলে কোথাও আটকে যেতে হয় না। কাঁসা-পিতলের বাসন হাত ফসকে পড়ে গেলে ঝনঝন শব্দে যেমন তেমনি এ ছড়াগুলোও বেজে ওঠে। নেচে ওঠে। তার ছড়া কি নিছক ছড়া, নাকি নাগরিক জীবনের দুঃখগাথা, আকুলিবিকুলি, হাসি-কান্না, তা নিয়ে দু’বার ভাববার আছে। কারণ ছড়ায় তিনি বলেছেন, ‘আকাশ কোথায়, মাথার ওপর/ মস্ত মস্ত দালান/ এই শহরের আকাশ থেকে/ চাঁদ হয়েছে চালান।’ সুবোধ পাঠকমাত্রই বুঝতে পারার কথাÑ নাগরিক জীবনের কোন অন্ধকার দিকটায় তিনি ছড়ার আলো ফেলেছেন। ছড়ায় বিষয়বস্তু নির্বাচন কিংবা আঙ্গিকগত দিক বিবেচনা করলে ছড়াকারের পরিপক্কতার পূর্বাভাস পাওয়া গেছে পূর্বেই। তার পূর্বে প্রকাশিত ছড়াগ্রন্থ ‘ফাগুন দিনের আগুন ছড়া’য় তা প্রস্ফুটিত হয়েছে খুব সহজেই। ওই বইয়ের ছড়াগুলোও পাঠক লুফে নিয়েছিল নিমিষেই। তার ছড়ায় প্রকৃতি, লোকসংস্কৃতি, যাপিত জীবনের সুখ-দুঃখ, আনন্দ-বেদনা ইত্যাদি উঠে আসে খুব সহজে। সেই সাথে সামাজিক সমস্যাগুলো প্রকট হয়ে ধরা দেয়। হয়তো অনুসিন্ধৎসু সংবাদকর্মীর চোখে কোনকিছু এড়ায় না। তার ছড়ায় আরেকটি বিশেষ দিক ধরা পড়ে। ছড়ায় যেন বৃষ্টি নামে তার। যেমন: ‘আকাশজুড়ে মেঘ জমেছে/ নামছে ভারি বৃষ্টি/ খোকনসোনার সেইদিকে নেই/ একটুখানি দৃষ্টি/—-/ সারা বিকেল বৃষ্টি হলো/ টাপুরটুপুর টুপ/ জানলা খুলে দেখলো খোকন/ বৃষ্টিদিনের রূপ/ ভাবলো বসে কোথায় পেল/ আকাশটা নলকূপ’ (ছড়া: বৃষ্টি-দিনের রূপ)।

তার ছড়ায় মহান মুক্তিযুদ্ধ ও মহান ভাষা আন্দোলন প্রাসঙ্গিকভাবেই উপস্থিত হয়। ‘স্বপ্ন আমার আকাশ সমান’ ছড়াগ্রন্থে মুক্তিযুদ্ধকে উপজীব্য করে ‘একাত্তরের আরজ আলী’ তেমনি একটি ছড়া। ছড়ায় মুক্তিযোদ্ধা আরজ আলীর যে কাহিনী তিনি বর্ণনা করেছেন তাতে বোঝা যায়, আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধ ছিল মূলত একটি জনযুদ্ধ। এ ছড়ার দু’টি লাইন পড়লে পাঠকমাত্রই ব্যাপারটা ধরতে পারবেনÑ ‘ঘর থেকে এক রামদা নিয়ে দাঁড়িয়ে থাকে ঝোপে/একটা পাকির মাথা দু-ভাগ দেয় করে এক কোপে।’ গল্প বলার ঢঙ-এ বিবৃত এই ছড়াটি এ বইয়ের অন্যতম ভালো একটি ছড়া। মহান ভাষা আন্দোলনকে তার লেখা ছড়ায় যেন শিশু-কিশোরদের পরিচয় করিয়ে দিচ্ছেন: ‘হলুদ গাঁদা, রক্তগোলাপ/ পথের মোড়ে মোড়ে/ খোকা যাচ্ছে শহিদমিনার/ সূর্যওঠা ভোরে’ (ছড়া: ফেব্রæয়ারির গল্প)।

আমাদের গ্রামীণ জীবনে কালবৈশাখী এক তা বের নাম। ছড়াকার সহজেই তার ছন্দের গাঁথুনিতে লিখে ফেলেনÑ ‘বাতাসের সাথে ওড়ে টিন কাঠ বাঁশ/ বৈশাখ মানে তাই বিপদের মাস/ ঝরে পড়ে আম জাম আরও কত ফল/ নদ-নদী বয়ে আনে পাহাড়িয়া ঢল’ (ছড়া: বৈশাখী দিন)। পরিশেষে এ কথা নিঃসন্দেহে বলা যায়, শিশু-কিশোরদের মানসিক উৎকর্ষতা সাধনের ক্ষেত্রে এ ছড়ার বইটি সহায়ক গ্রন্থ হিসেবে কাজ করবে। শিল্পী আইয়ুব আল আমিনের করা মনোরম প্রচ্ছদ সম্বলিত বইটি প্রকাশ করেছে প্রকাশনা সংস্থা ‘বাবুই’। বাবুইয়ের বিক্রয়কেন্দ্র ছাড়াও বই বেচাকেনার অনলাইন প্লাটফর্ম ‘রকমারি’তেও পাওয়া যাবে বইটি।

[বই : স্বপ্ন আমার আকাশ সমান। লেখক: সঞ্জয় সরকার। প্রকাশক : বাবুই। প্রকাশকাল: ফেব্রæয়ারি ২০২১। প্রচ্ছদ: আইয়ুব আল আমিন। দাম: ১৫০ টাকা।]
হাসিন মোয়াজ্জেম: ছড়াকার।

শেয়ার করুন..

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement
এক ক্লিকে বিভাগের খবর

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১  
ঘোষনা : আমাদের পূর্বকন্ঠ ওয়েবসাইটে প্রবেশ করার জন্য আপনাকে স্বাগতম। আপনার আশপাশে ঘটে যাওয়া খবরা খবর জানাতে আমাদের ফোন করুন-০১৭১৩৫৭৩৫০২ এই নাম্বারে ☎ গুরুত্বপূর্ণ নাম্বার সমূহ : ☎ জরুরী সেবা : ৯৯৯ ☎ নেত্রকোনা ফায়ার স্টেশন: ০১৭৮৯৭৪৪২১২☎ জেলা প্রশাসক ,নেত্রকোনা:০১৩১৮-২৫১৪০১ ☎ পুলিশ সুপার,নেত্রকোনা: ০১৩২০১০৪১০০☎ অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, সদর সার্কেল : ০১৩২০১০৪১৪৫ ☎ ইউএনও,পূর্বধলা : ০১৭৯৩৭৬২১০৮☎ ওসি পূর্বধলা : ০১৩২০১০৪৩১৫ ☎ শ্যামগঞ্জ পুলিশ তদন্ত কেন্দ্র : ০১৩২০১০৪৩৩৩ ☎ ওসি শ্যামগঞ্জ হাইওয়ে থানা : ০১৩২০১৮২৮২৬ ☎ উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা, পূর্বধলা: ০১৭০০৭১৭২১২/০৯৫৩২৫৬১০৬ ☎ উপজেলা সমাজসেবা অফিসার, পূর্বধলা : ০১৭১৮৩৮৭৫৮৭/০১৭০৮৪১৫০২২ ☎ উপজেলা মৎস্য অফিসার, পূর্বধলা : ০১৫১৫-৬১৪৯২১ ☎ উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা, পূর্বধলা : ০১৯৯০-৭০৩০২০ ☎ উপজেলা প্রাণি সম্পদ অফিসার, পূর্বধলা : ০১৭১৮-৭২৮২৯৪ ☎ উপজেলা প্রকৌশলী (এলজিইডি) পূর্বধলা :০১৭০৮-১৬১৪৫৭ ☎ উপজেলা আনসার ভিডিপি অফিসার, পূর্বধলা : ০১৯১৪-৯১৯৯৩৮ ☎ উপ-সহকারি প্রকৌশলী, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অফিস, পূর্বধলা : ০১৯১৬-৮২৬৬৬৮ ☎ উপজেলা যুব উন্নয়ন অফিসার, পূর্বধলা : ০১৭১১-৭৮৯৭৯৮ ☎ উপজেলা কৃষি অফিসার, পূর্বধলা : ০১৭১৬-৭৯৮৯৪৬ ☎ উপজেলা শিক্ষা অফিসার, পূর্বধলা : ০১৭১৫-৪৭৪২৯৬ ☎ উপজেলা সমবায় অফিসার, পূর্বধলা : ০১৭১৭-০৪৩৬৩৯ ☎ সম্পাদক পূর্বকন্ঠ ☎ ০১৭১৩৫৭৩৫০২ ☎
মোঃ শফিকুল আলম শাহীন সম্পাদক ও প্রকাশক
পূর্বকণ্ঠ ২০১৬ সালে তথ্য অধিদপ্তরে নিবন্ধনের জন্য আবেদিত।
বার্তা ও সম্পাদকীয় কার্যালয়

স্টেশন রোড, পূর্বধলা, নেত্রকোনা।

হেল্প লাইনঃ +৮৮০৯৬৯৬৭৭৩৫০২

E-mail: info@purbakantho.com