নেত্রকোনা ০৭:০৯ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

রাঙ্গামাটির কাপ্তাই হ্রদে বোট ডুবির ঘটনায় নিহতদের আত্নার শান্তি কামনা ও শোক

  • আপডেট : ০৮:১৩:২৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২০
  • ১২১৭ বার পঠিত

মহুয়া জান্নাত মনি,রাঙ্গামাটি প্রতিনিধি:
রাঙ্গামাটির কাপ্তাই হ্রদ ও কর্ণফুলি নদীতে মর্মান্তিক ইঞ্জিন বোট ডুবির ঘটনায় নিহতদের আত্নার শান্তি কামনা এবং শোকাহত স্বজনদের প্রতি সমবেদনা প্রকাশ করে শুক্রবার সন্ধ্যায় ব্যাক্তিগত উদ্দ্যেগে মোমবাতি প্রজ্ঝলন করে শোক প্রকাশ করেছেন রাঙ্গামাটি জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক ও বরকল উপজেলা পরিষদের প্রাক্তন চেয়ারম্যান সন্তোষ কুমার চাকমা। শহরের কাটা পাহাড় এলাকার কাপ্তাই হ্রদের পাড়ে ফুল ও প্রজ্জলিত মোববাতি জ¦ালিয়ে কিছুক্ষন নীরবতা পালন করা হয়।

এ সময় কাপ্তাই হ্রদ ও কর্ণফুলি নদীতে মর্মান্তিক ইঞ্জিন বোট ডুবির ঘটনায় নিহতের বিদেহী আত্মার সুখ, শান্তি ও সৎগতি কামনা করে শোক ও মোমবাতি প্রজ্জলন কর্মসূচীতে অংশগ্রহণ করে সদর যুবলীগের অর্থ সম্পাদক রাসেল কুমার দে, এ্যাডভোকেট বিপ্লব চাকমা, আওয়ামীলীগের প্রাক্তন নেতা প্রভাত কুমার দেব’সহ বিভিন্ন এলাকার নারী-পুরুষ।

এ সময় রাঙ্গামাটি জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক সন্তোষ কুমার চাকমা বলেন, বিগত বছরগুলোর দিকে ফিরে তাকালে দেখা যায়। সাঁতার না জানা অনেক পর্যটক এখানে এসে গোসল করতে নেমে বা দূর্ঘটনায় প্রাণ হারায় যা কারো কাম্য নয়। এ বিষয়ে প্রশাসনকে আরো সতর্ক অবস্থান ও সচেতনতা বৃদ্ধি করতে হবে। বিশেষ করে এখানকার স্থানীয় যেসকল বোট চালক রয়েছে তাদের প্রশিক্ষণ ও নিজ নিজ বোটে লাইফ জ্যাকেট রাখা বাধ্যতামূলক করতে হবে। প্রয়োজনে মোবাইল কোর্ট পরিচালনার মাধ্যমে টুরিষ্ট বোটে লাইফ জ্যাকেট রয়েছে কিনা এবং তা পর্যটকরা ব্যাহার করছে কিনা তা খতিয়ে দেখতে হবে। তাবেই এ ধরনের দূর্ঘটনা কমে আসবে। সাঁতার প্রশিক্ষন প্রদানের বিষয়ে সংশ্লিষ্টদের আরো জোরালো পদক্ষেপ গ্রহনের আহ্বান জানান তিনি।

উল্লেখ, শুক্রবার (১৪ ফেব্রুয়ারী) দুপুরে রাঙ্গামাটি সদরের কাপ্তাই হ্রদে চট্টগ্রাম ইপিজেট থেকে আসা পর্যটকেরা পর্যটন এলাকা থেকে ইঞ্চিন চালিত বোটে করে শুভলং ঝর্ণায় ঘুরতে বের হয়। এসময় ডিসি বাংলোর পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় হঠাৎ বোটটি উল্টে ডুবে যায়। এতে ৫ জন নিহত হয় এবং কাপ্তাই চন্দ্রঘোনায় কয়লার ডিপু সংলগ্ন কর্ণফুলি নদীতে চট্টগ্রাম থেকে আসা আন্তর্জাতিক কৃষ্ণ ভাবনামৃত সংঘ(ইসকন)’র একটি পর্যটকবাহী ইঞ্জিন বোট ডুবে যায়। দুর্ঘটনায় ১জন নিহত ও ২জন এখনও নিখোঁজ রয়েছে। নিখোঁজদের উদ্ধার অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

আপনার মন্তব্য লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষণ করুন

প্রকাশক ও সম্পাদক সম্পর্কে-

শফিকুল আলম শাহীন

আমি একজন ওয়েব ডেভেলপার ও সাংবাদিক। আমি দৈনিক ইত্তেফাক পত্রিকায় পূর্বধলা উপজেলা সংবাদদাতা হিসেবে কর্মরত । সেইসাথে পূর্বকণ্ঠ অনলাইন প্রকাশনার সম্পাদক ও প্রকাশক। আমার বর্তমান ঠিকানা স্টেশন রোড, পূর্বধলা, নেত্রকোনা। আমি জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে ইতিবাচক। আমার ধর্ম ইসলাম। আমি করতে, দেখতে এবং অভিজ্ঞতা করতে পছন্দ করি এমন অনেক কিছু আছে। আমি আইটি সেক্টর নিয়ে বিভিন্ন এক্সপেরিমেন্ট করতে পছন্দ করি। যেমন ওয়েব পেজ তৈরি করা, বিভিন্ন অ্যাপ তৈরি করা, রেডিও স্টেশন তৈরি করা, অনলাইন সংবাদপত্র তৈরি করা ইত্যাদি। প্রয়োজনে: ০১৭১৩৫৭৩৫০২

রাঙ্গামাটির কাপ্তাই হ্রদে বোট ডুবির ঘটনায় নিহতদের আত্নার শান্তি কামনা ও শোক

আপডেট : ০৮:১৩:২৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২০

মহুয়া জান্নাত মনি,রাঙ্গামাটি প্রতিনিধি:
রাঙ্গামাটির কাপ্তাই হ্রদ ও কর্ণফুলি নদীতে মর্মান্তিক ইঞ্জিন বোট ডুবির ঘটনায় নিহতদের আত্নার শান্তি কামনা এবং শোকাহত স্বজনদের প্রতি সমবেদনা প্রকাশ করে শুক্রবার সন্ধ্যায় ব্যাক্তিগত উদ্দ্যেগে মোমবাতি প্রজ্ঝলন করে শোক প্রকাশ করেছেন রাঙ্গামাটি জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক ও বরকল উপজেলা পরিষদের প্রাক্তন চেয়ারম্যান সন্তোষ কুমার চাকমা। শহরের কাটা পাহাড় এলাকার কাপ্তাই হ্রদের পাড়ে ফুল ও প্রজ্জলিত মোববাতি জ¦ালিয়ে কিছুক্ষন নীরবতা পালন করা হয়।

এ সময় কাপ্তাই হ্রদ ও কর্ণফুলি নদীতে মর্মান্তিক ইঞ্জিন বোট ডুবির ঘটনায় নিহতের বিদেহী আত্মার সুখ, শান্তি ও সৎগতি কামনা করে শোক ও মোমবাতি প্রজ্জলন কর্মসূচীতে অংশগ্রহণ করে সদর যুবলীগের অর্থ সম্পাদক রাসেল কুমার দে, এ্যাডভোকেট বিপ্লব চাকমা, আওয়ামীলীগের প্রাক্তন নেতা প্রভাত কুমার দেব’সহ বিভিন্ন এলাকার নারী-পুরুষ।

এ সময় রাঙ্গামাটি জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক সন্তোষ কুমার চাকমা বলেন, বিগত বছরগুলোর দিকে ফিরে তাকালে দেখা যায়। সাঁতার না জানা অনেক পর্যটক এখানে এসে গোসল করতে নেমে বা দূর্ঘটনায় প্রাণ হারায় যা কারো কাম্য নয়। এ বিষয়ে প্রশাসনকে আরো সতর্ক অবস্থান ও সচেতনতা বৃদ্ধি করতে হবে। বিশেষ করে এখানকার স্থানীয় যেসকল বোট চালক রয়েছে তাদের প্রশিক্ষণ ও নিজ নিজ বোটে লাইফ জ্যাকেট রাখা বাধ্যতামূলক করতে হবে। প্রয়োজনে মোবাইল কোর্ট পরিচালনার মাধ্যমে টুরিষ্ট বোটে লাইফ জ্যাকেট রয়েছে কিনা এবং তা পর্যটকরা ব্যাহার করছে কিনা তা খতিয়ে দেখতে হবে। তাবেই এ ধরনের দূর্ঘটনা কমে আসবে। সাঁতার প্রশিক্ষন প্রদানের বিষয়ে সংশ্লিষ্টদের আরো জোরালো পদক্ষেপ গ্রহনের আহ্বান জানান তিনি।

উল্লেখ, শুক্রবার (১৪ ফেব্রুয়ারী) দুপুরে রাঙ্গামাটি সদরের কাপ্তাই হ্রদে চট্টগ্রাম ইপিজেট থেকে আসা পর্যটকেরা পর্যটন এলাকা থেকে ইঞ্চিন চালিত বোটে করে শুভলং ঝর্ণায় ঘুরতে বের হয়। এসময় ডিসি বাংলোর পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় হঠাৎ বোটটি উল্টে ডুবে যায়। এতে ৫ জন নিহত হয় এবং কাপ্তাই চন্দ্রঘোনায় কয়লার ডিপু সংলগ্ন কর্ণফুলি নদীতে চট্টগ্রাম থেকে আসা আন্তর্জাতিক কৃষ্ণ ভাবনামৃত সংঘ(ইসকন)’র একটি পর্যটকবাহী ইঞ্জিন বোট ডুবে যায়। দুর্ঘটনায় ১জন নিহত ও ২জন এখনও নিখোঁজ রয়েছে। নিখোঁজদের উদ্ধার অভিযান অব্যাহত রয়েছে।