নেত্রকোনা ০২:১৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

পূর্বধলায় স্বতন্ত্র প্রার্থী মাজহারুল ইসলাম সোহেল ফিরে পেলেন প্রার্থিতা

  • আপডেট : ০৫:৩৮:৪৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২২ ডিসেম্বর ২০২৩
  • ১০৭৩ বার পঠিত

পূর্বধলা (নেত্রকোনা) প্রতিনিধিঃ নির্বাচন কমিশনের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে হাই কোর্টের রিটের আদেশে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নেত্রকোনা-৫ (পূ্র্বধলা) আসনের প্রার্থিতা ফিরে পেয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী মাজহারুল ইসলাম সোহেল। বৃহস্পতিবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের লাইভে এসে প্রার্থীতা ফিরে পেয়েছেন বলে জানিয়েছেন মাজহারুল ইসলাম সোহেল।

সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা ও পূ্র্বধলা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ খবিরুল আহসান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ঢাকা মহানগর উত্তর কৃষক লীগের সহ-সভাপতি ও রোজা ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান মাজহারুল ইসলাম সোহেল প্রার্থীতা ফিরে পাওয়ায় আসনটিতে প্রার্থীর সংখ্যা দাঁড়াল পাঁচ জনে।

রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ের সূত্রে জানা গেছে, স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মাজহারুল ইসলাম সোহেলের জমা দেওয়া এক শতাংশ ভোটারের তালিকায় ভোটারের সংখ্যা কম ছিল উল্লেখ করে বাছাইয়ে তার মনোনয়ন বাতিল করেছিলেন জেলা রিটানিং কর্মকর্তা। এরপর নির্বাচন কমিশনে আপিল করলে সেখানেও মাজহারুল ইসলাম সোহেলের মনোনয়ন বাতিল হয়।,

প্রার্থীতা ফিরে পেতে হাইকোর্টে রিট করেন তিনি। এ আসনে মাজহারুল ইসলাম সোহেল ছাড়াও আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আহমদ হোসেন, জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী পূ্র্বধলা উপজেলা শাখার সভাপতি ওয়াহিদুজ্জামান তালুকদার আজাদ, তৃণমূল বিএনপি মনোনীত প্রার্থী আব্দুল ওয়াহ্হাব হামিদী ও স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে জাহাঙ্গীর নগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক ড. আনোয়ার হোসেন প্রতিদ্বন্দ্বিতায় রয়েছেন।,’

একটি মাত্র উপজেলা নিয়ে গঠিত নেত্রকোনা-৫ (পূ্র্বধলা) আসন। এ আসনে ভোটার সংখ্যা ২ লাখ ৭০ হাজার ৬৯৯ জন। প্রার্থীতা ফিরে পাওয়া মাজহারুল ইসলাম সোহেল মোবাইলে বলেন, “আমাকে নানা ষড়যন্ত্র করে নির্বাচন থেকে দূরে সরিয়ে রাখার চক্রান্ত করা হয়েছিল। পূর্বধলার মানুষের দোয়া ও ভালোবাসা এবং চোখের পানি বিফলে যায়নি। মহামান্য হাইকোর্ট আমার প্রার্থীতা ফিরিয়ে দিয়েছেন। আমি ন্যায়বিচার পেয়েছি। নির্বাচন অবাধ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হলে জয়ের ব্যাপারেও আমি আশাবাদী।,’

আপনার মন্তব্য লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষণ করুন

প্রকাশক ও সম্পাদক সম্পর্কে-

শফিকুল আলম শাহীন

আমি একজন ওয়েব ডেভেলপার ও সাংবাদিক। আমি দৈনিক ইত্তেফাক পত্রিকায় পূর্বধলা উপজেলা সংবাদদাতা হিসেবে কর্মরত । সেইসাথে পূর্বকণ্ঠ অনলাইন প্রকাশনার সম্পাদক ও প্রকাশক। আমার বর্তমান ঠিকানা স্টেশন রোড, পূর্বধলা, নেত্রকোনা। আমি জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে ইতিবাচক। আমার ধর্ম ইসলাম। আমি করতে, দেখতে এবং অভিজ্ঞতা করতে পছন্দ করি এমন অনেক কিছু আছে। আমি আইটি সেক্টর নিয়ে বিভিন্ন এক্সপেরিমেন্ট করতে পছন্দ করি। যেমন ওয়েব পেজ তৈরি করা, বিভিন্ন অ্যাপ তৈরি করা, রেডিও স্টেশন তৈরি করা, অনলাইন সংবাদপত্র তৈরি করা ইত্যাদি। প্রয়োজনে: ০১৭১৩৫৭৩৫০২

পূর্বধলায় স্বতন্ত্র প্রার্থী মাজহারুল ইসলাম সোহেল ফিরে পেলেন প্রার্থিতা

আপডেট : ০৫:৩৮:৪৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২২ ডিসেম্বর ২০২৩

পূর্বধলা (নেত্রকোনা) প্রতিনিধিঃ নির্বাচন কমিশনের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে হাই কোর্টের রিটের আদেশে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নেত্রকোনা-৫ (পূ্র্বধলা) আসনের প্রার্থিতা ফিরে পেয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী মাজহারুল ইসলাম সোহেল। বৃহস্পতিবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের লাইভে এসে প্রার্থীতা ফিরে পেয়েছেন বলে জানিয়েছেন মাজহারুল ইসলাম সোহেল।

সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা ও পূ্র্বধলা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ খবিরুল আহসান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ঢাকা মহানগর উত্তর কৃষক লীগের সহ-সভাপতি ও রোজা ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান মাজহারুল ইসলাম সোহেল প্রার্থীতা ফিরে পাওয়ায় আসনটিতে প্রার্থীর সংখ্যা দাঁড়াল পাঁচ জনে।

রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ের সূত্রে জানা গেছে, স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মাজহারুল ইসলাম সোহেলের জমা দেওয়া এক শতাংশ ভোটারের তালিকায় ভোটারের সংখ্যা কম ছিল উল্লেখ করে বাছাইয়ে তার মনোনয়ন বাতিল করেছিলেন জেলা রিটানিং কর্মকর্তা। এরপর নির্বাচন কমিশনে আপিল করলে সেখানেও মাজহারুল ইসলাম সোহেলের মনোনয়ন বাতিল হয়।,

প্রার্থীতা ফিরে পেতে হাইকোর্টে রিট করেন তিনি। এ আসনে মাজহারুল ইসলাম সোহেল ছাড়াও আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আহমদ হোসেন, জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী পূ্র্বধলা উপজেলা শাখার সভাপতি ওয়াহিদুজ্জামান তালুকদার আজাদ, তৃণমূল বিএনপি মনোনীত প্রার্থী আব্দুল ওয়াহ্হাব হামিদী ও স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে জাহাঙ্গীর নগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক ড. আনোয়ার হোসেন প্রতিদ্বন্দ্বিতায় রয়েছেন।,’

একটি মাত্র উপজেলা নিয়ে গঠিত নেত্রকোনা-৫ (পূ্র্বধলা) আসন। এ আসনে ভোটার সংখ্যা ২ লাখ ৭০ হাজার ৬৯৯ জন। প্রার্থীতা ফিরে পাওয়া মাজহারুল ইসলাম সোহেল মোবাইলে বলেন, “আমাকে নানা ষড়যন্ত্র করে নির্বাচন থেকে দূরে সরিয়ে রাখার চক্রান্ত করা হয়েছিল। পূর্বধলার মানুষের দোয়া ও ভালোবাসা এবং চোখের পানি বিফলে যায়নি। মহামান্য হাইকোর্ট আমার প্রার্থীতা ফিরিয়ে দিয়েছেন। আমি ন্যায়বিচার পেয়েছি। নির্বাচন অবাধ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হলে জয়ের ব্যাপারেও আমি আশাবাদী।,’