নেত্রকোনা ১০:৫৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

পূর্বধলায় ঋণের দায়ে ব্যবসায়ীর আত্মহত্যা

  • আপডেট : ১২:৫৯:৪১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৫ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • ১২৬১ বার পঠিত

পূর্বধলা (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি :

নেত্রকোনার পূর্বধলায় ঋণের টাকা পরিশোধ করতে না পেরে ইলিয়াস ফকির (৩৮) নামের এক মুদি ব্যবসায়ী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

সোমবার দিবাগত রাত সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার হোগলা ইউনিয়নের জামিরাকান্দা (ভরাকান্দা) গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত ইলিয়াস ফকির ওই গ্রামের মৃত জসিম উদ্দিন ফকিরের ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ইলিয়াস ফকির বেশ কয়েক বছর ধরে তার বাড়ির পাশেই একটি মুদি দোকান দিয়ে ব্যবসা করে পরিবার পরিজন নিয়ে বেশ ভালই চলছিলেন। গত এক দেড় বছর আগে তিনি তার দোকানের পাশেই ১০শতক জায়গা কিনে ধার দেনা করে বসবাসের জন্য একটি হাফবিল্ডিং ঘর নির্মাণ করেন।

ঘর নির্মাণের সময় স্থানীয় দুটি এনজিও থেকে কিছু টাকা ঋণ উত্তোলন করেন। যা মাসিক কিস্তি আকারে পরিশোধের কথা। কিস্তি দিতে গিয়ে তিনি এলাকার বেশ কয়েকজনের কাছ থেকে ঋণের ওপর টাকা এনে দেনায় জর্জরিত হয়ে পড়েন। এ ঋণের টাকা পরিশোধ করতে না পারায় তিনি গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যার পথ বেছে নেন।

নিহতের ভাই জয়নাল ফকির জানান, ২০ থেকে ২২লক্ষ টাকা ঋণ হয়ে ছিল তার ভাই ইলিয়াস ফকিরের। যা প্রতি মাসে কিস্তি ছিল ১লক্ষ৭০হাজার টাকা। এই ঋণের টাকা পরিশোধ করতে না পেরেই তা ভাই বাড়ির পাশে আম গাছের ডালে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য কাদির ফকির জানান, লোকটি খুব ঋণগ্রস্থ ছিল। সোমবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে হঠাৎ স্থানীয়রা তার বাড়ির পাশে আম গাছের ডালে লাশ ঝুলে থাকতে দেখে পুলিশে খবর দেয়।

পূর্বধলা থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পেলে পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আপনার মন্তব্য লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষণ করুন

প্রকাশক ও সম্পাদক সম্পর্কে-

শফিকুল আলম শাহীন

আমি একজন ওয়েব ডেভেলপার ও সাংবাদিক। আমি দৈনিক ইত্তেফাক পত্রিকায় পূর্বধলা উপজেলা সংবাদদাতা হিসেবে কর্মরত । সেইসাথে পূর্বকণ্ঠ অনলাইন প্রকাশনার সম্পাদক ও প্রকাশক। আমার বর্তমান ঠিকানা স্টেশন রোড, পূর্বধলা, নেত্রকোনা। আমি জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে ইতিবাচক। আমার ধর্ম ইসলাম। আমি করতে, দেখতে এবং অভিজ্ঞতা করতে পছন্দ করি এমন অনেক কিছু আছে। আমি আইটি সেক্টর নিয়ে বিভিন্ন এক্সপেরিমেন্ট করতে পছন্দ করি। যেমন ওয়েব পেজ তৈরি করা, বিভিন্ন অ্যাপ তৈরি করা, রেডিও স্টেশন তৈরি করা, অনলাইন সংবাদপত্র তৈরি করা ইত্যাদি। আমার সম্পাদনায় প্রকাশিত পূর্বকন্ঠ পত্রিকাটি স্বাধীনতার চেতনায় একটি নিরপেক্ষ জাতীয় অনলাইন । পাঠক আমাদের সবচেয়ে বড় অনুপ্রেরনা। পূর্বকণ্ঠ কথা বলে বাঙালির আত্মপ্রত্যয়ী আহ্বান ও ত্যাগে অর্জিত স্বাধীনতার। কথা বলে স্বাধীনতার চেতনায় উদ্বুদ্ধ হতে। ছড়িয়ে দিতে এ চেতনা দেশের প্রত্যেক কোণে কোণে। আমরা রাষ্ট্রের আইন কানুন, রীতিনীতির প্রতি শ্রদ্ধাশীল। দেশপ্রেম ও রাষ্ট্রীয় আইন বিরোধী এবং বাঙ্গালীর আবহমান কালের সামাজিক সহনশীলতার বিপক্ষে পূর্বকন্ঠ কখনো সংবাদ প্রকাশ করে না। আমরা সকল ধর্মমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল, কোন ধর্মমত বা তাদের অনুসারীদের অনুভূতিতে আঘাত দিয়ে আমরা কিছু প্রকাশ করি না। আমাদের সকল প্রচেষ্টা পাঠকের সংবাদ চাহিদাকে কেন্দ্র করে। তাই পাঠকের যে কোনো মতামত আমরা সাদরে গ্রহন করব। প্রয়োজনে: ০১৭১৩৫৭৩৫০২

পূর্বধলায় ঋণের দায়ে ব্যবসায়ীর আত্মহত্যা

আপডেট : ১২:৫৯:৪১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৫ সেপ্টেম্বর ২০২৩

পূর্বধলা (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি :

নেত্রকোনার পূর্বধলায় ঋণের টাকা পরিশোধ করতে না পেরে ইলিয়াস ফকির (৩৮) নামের এক মুদি ব্যবসায়ী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

সোমবার দিবাগত রাত সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার হোগলা ইউনিয়নের জামিরাকান্দা (ভরাকান্দা) গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত ইলিয়াস ফকির ওই গ্রামের মৃত জসিম উদ্দিন ফকিরের ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ইলিয়াস ফকির বেশ কয়েক বছর ধরে তার বাড়ির পাশেই একটি মুদি দোকান দিয়ে ব্যবসা করে পরিবার পরিজন নিয়ে বেশ ভালই চলছিলেন। গত এক দেড় বছর আগে তিনি তার দোকানের পাশেই ১০শতক জায়গা কিনে ধার দেনা করে বসবাসের জন্য একটি হাফবিল্ডিং ঘর নির্মাণ করেন।

ঘর নির্মাণের সময় স্থানীয় দুটি এনজিও থেকে কিছু টাকা ঋণ উত্তোলন করেন। যা মাসিক কিস্তি আকারে পরিশোধের কথা। কিস্তি দিতে গিয়ে তিনি এলাকার বেশ কয়েকজনের কাছ থেকে ঋণের ওপর টাকা এনে দেনায় জর্জরিত হয়ে পড়েন। এ ঋণের টাকা পরিশোধ করতে না পারায় তিনি গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যার পথ বেছে নেন।

নিহতের ভাই জয়নাল ফকির জানান, ২০ থেকে ২২লক্ষ টাকা ঋণ হয়ে ছিল তার ভাই ইলিয়াস ফকিরের। যা প্রতি মাসে কিস্তি ছিল ১লক্ষ৭০হাজার টাকা। এই ঋণের টাকা পরিশোধ করতে না পেরেই তা ভাই বাড়ির পাশে আম গাছের ডালে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য কাদির ফকির জানান, লোকটি খুব ঋণগ্রস্থ ছিল। সোমবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে হঠাৎ স্থানীয়রা তার বাড়ির পাশে আম গাছের ডালে লাশ ঝুলে থাকতে দেখে পুলিশে খবর দেয়।

পূর্বধলা থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পেলে পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।