নেত্রকোনা ০৪:৩৩ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ৯ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নেত্রকোনা ডিবি পুলিশের পৃথক অভিযানে ভারতীয় মদসহ ৩৫০ পিচ ইয়াবা উদ্ধার, অভিযানে গ্রেপ্তার-৪

  • আপডেট : ১১:৫৪:৫৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৬ অগাস্ট ২০১৯
  • ২৬৫

কে. এম. সাখাওয়াত হোসেন, নেত্রকোনা :

নেত্রকোনা জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ দুর্গাপুর উপজেলায় পৃথক পৃথক অভিযান চালিয়ে আট বোতল ভারতীয় মদ ও ৩৫০ পিচ ইয়াবা উদ্ধার করেছে। এসব মাদকদ্রব্য উদ্ধারের সময় ডিবি পুলিশ পৃথক স্থান থেকে চার জনকে গ্রেফতার করে মাদক আইনে মামলা দিয়ে আদালতে প্রেরণ করে। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন জেলা ডিবির ওসি মো. শাহ্‌ নুর এ আলম।

তিনি বলেন, গোয়েন্দ শাখার এসআই মো. জাকির হোসেন ও তার টিম গত ২৫ আগস্ট দিনগত রাত সাড়ে ১০টার দিকে জেলার দুর্গাপুর উপজেলার ডেওটোকোন গ্রামের জনৈক মোস্তফার দোকানের সামনে পাকা রাস্তার উপর থেকে আমদানি নিষিদ্ধ ৮ বোতল ভারতীয় মদসহ তিন জনকে আটক করে। আটকৃতকরা হলো দুর্গাপুর উপজেলার চক লেংগুরা গ্রামের আ. আজিজের ছেলে হান্নান মিয়া (১৮), মেনকিফান্দা গ্রামের বাবুল মিয়ার ছেলে মান্নান শেখ ওরফে সানি ও কালিকাপুর গ্রামের মো. সাদির উদ্দিনের ছেলে মো. সজিব মিয়া (১৮)। এদের বিরুদ্ধের মাদক আইনে মামলা করে সোমবার (২৬ আগস্ট) আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

এছাড়াও তিনি বলেন, ২৪ আগস্ট একই উপজেলায় আরেকটি অভিযানে ৩৫০ পিচ ইয়াবাসহ মো. জুয়েল মিয়াকে (২২) গ্রেফতার করে এসআই উত্তম কুমার দাস ও তার সঙ্গীয় এএসআই ইয়াকুব আলী ও চিত্তরঞ্জন, খালেদ মোশারফসহ একটি ডিবির টিম। গ্রেফতারকৃত জুয়েল উপজেলার গুদারিয়া গ্রামের মৃত আদম আলীর ছেলে এবং তাদের বিরুদ্ধে মাদক আইনের মামলায় জেলে প্রেরণ করেছে আদালত।

মাদকের বিরুদ্ধে ‘জিরো টলারেন্স নীতি’ অনুসরণ করে এ ধরণের অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে ডিবির ওসি মো. শাহ্‌ নুর এ আলম জানিয়েছেন।

আপনার মন্তব্য লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষণ করুন

প্রকাশক ও সম্পাদক সম্পর্কে-

আমি মো. শফিকুল আলম শাহীন। আমি একজন ওয়েব ডেভেলপার ও সাংবাদিক । আমি পূর্বকণ্ঠ অনলাইন প্রকাশনার সম্পাদক ও প্রকাশক। আমি জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে ইতিবাচক। আমি করতে, দেখতে এবং অভিজ্ঞতা করতে পছন্দ করি এমন অনেক কিছু আছে। আমি আইটি সেক্টর নিয়ে বিভিন্ন এক্সপেরিমেন্ট করতে পছন্দ করি। যেমন ওয়েব পেজ তৈরি করা, বিভিন্ন অ্যাপ তৈরি করা, অনলাইন রেডিও স্টেশন তৈরি করা, অনলাইন সংবাদপত্র তৈরি করা ইত্যাদি। আমাদের প্রকাশনা “পূর্বকন্ঠ” স্বাধীনতার চেতনায় একটি নিরপেক্ষ জাতীয় অনলাইন । পাঠক আমাদের সবচেয়ে বড় অনুপ্রেরনা। পূর্বকণ্ঠ কথা বলে বাঙালির আত্মপ্রত্যয়ী আহ্বান ও ত্যাগে অর্জিত স্বাধীনতার। কথা বলে স্বাধীনতার চেতনায় উদ্বুদ্ধ হতে। ছড়িয়ে দিতে এ চেতনা দেশের প্রত্যেক কোণে কোণে। আমরা রাষ্ট্রের আইন কানুন, রীতিনীতির প্রতি শ্রদ্ধাশীল। দেশপ্রেম ও রাষ্ট্রীয় আইন বিরোধী এবং বাঙ্গালীর আবহমান কালের সামাজিক সহনশীলতার বিপক্ষে পূর্বকন্ঠ কখনো সংবাদ প্রকাশ করে না। আমরা সকল ধর্মমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল, কোন ধর্মমত বা তাদের অনুসারীদের অনুভূতিতে আঘাত দিয়ে আমরা কিছু প্রকাশ করি না। আমাদের সকল প্রচেষ্টা পাঠকের সংবাদ চাহিদাকে কেন্দ্র করে। তাই পাঠকের যে কোনো মতামত আমরা সাদরে গ্রহন করব।

নেত্রকোনা ডিবি পুলিশের পৃথক অভিযানে ভারতীয় মদসহ ৩৫০ পিচ ইয়াবা উদ্ধার, অভিযানে গ্রেপ্তার-৪

আপডেট : ১১:৫৪:৫৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৬ অগাস্ট ২০১৯

কে. এম. সাখাওয়াত হোসেন, নেত্রকোনা :

নেত্রকোনা জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ দুর্গাপুর উপজেলায় পৃথক পৃথক অভিযান চালিয়ে আট বোতল ভারতীয় মদ ও ৩৫০ পিচ ইয়াবা উদ্ধার করেছে। এসব মাদকদ্রব্য উদ্ধারের সময় ডিবি পুলিশ পৃথক স্থান থেকে চার জনকে গ্রেফতার করে মাদক আইনে মামলা দিয়ে আদালতে প্রেরণ করে। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন জেলা ডিবির ওসি মো. শাহ্‌ নুর এ আলম।

তিনি বলেন, গোয়েন্দ শাখার এসআই মো. জাকির হোসেন ও তার টিম গত ২৫ আগস্ট দিনগত রাত সাড়ে ১০টার দিকে জেলার দুর্গাপুর উপজেলার ডেওটোকোন গ্রামের জনৈক মোস্তফার দোকানের সামনে পাকা রাস্তার উপর থেকে আমদানি নিষিদ্ধ ৮ বোতল ভারতীয় মদসহ তিন জনকে আটক করে। আটকৃতকরা হলো দুর্গাপুর উপজেলার চক লেংগুরা গ্রামের আ. আজিজের ছেলে হান্নান মিয়া (১৮), মেনকিফান্দা গ্রামের বাবুল মিয়ার ছেলে মান্নান শেখ ওরফে সানি ও কালিকাপুর গ্রামের মো. সাদির উদ্দিনের ছেলে মো. সজিব মিয়া (১৮)। এদের বিরুদ্ধের মাদক আইনে মামলা করে সোমবার (২৬ আগস্ট) আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

এছাড়াও তিনি বলেন, ২৪ আগস্ট একই উপজেলায় আরেকটি অভিযানে ৩৫০ পিচ ইয়াবাসহ মো. জুয়েল মিয়াকে (২২) গ্রেফতার করে এসআই উত্তম কুমার দাস ও তার সঙ্গীয় এএসআই ইয়াকুব আলী ও চিত্তরঞ্জন, খালেদ মোশারফসহ একটি ডিবির টিম। গ্রেফতারকৃত জুয়েল উপজেলার গুদারিয়া গ্রামের মৃত আদম আলীর ছেলে এবং তাদের বিরুদ্ধে মাদক আইনের মামলায় জেলে প্রেরণ করেছে আদালত।

মাদকের বিরুদ্ধে ‘জিরো টলারেন্স নীতি’ অনুসরণ করে এ ধরণের অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে ডিবির ওসি মো. শাহ্‌ নুর এ আলম জানিয়েছেন।