নেত্রকোনা ০৫:৩০ অপরাহ্ন, সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ২১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

নেত্রকোনায় প্রদর্শনী বাস্তবায়নে সফলতা অর্জন করায় ৪০ জন নারী-পুরুষকে পুরস্কিত

  • আপডেট : ০২:৩২:২২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩ অক্টোবর ২০১৯
  • ১৫৯৫ বার পঠিত

কে. এম. সাখাওয়াত হোসেন, নেত্রকোনা :

হাওর অঞ্চলের অবকাঠামো ও জীবনমান উন্নয়ন (হিলিপ) এবং অভিযোজন ও জীবনমান সুরক্ষা (ক্যালিপ) প্রকল্পের আওতায় কৃষি, মৎস্য, প্রাণিসম্পদ ও কারিগরি প্রদর্শনী বাস্তবায়নে সফলতা অর্জন করায় নেত্রকোনার ৪০ জন নারী-পুরুষ উপকারভোগীকে পুরস্কার প্রদান করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় ‘এওয়ার্ড ফর বেস্ট প্রেক্টিস্’ নামক অনুষ্ঠান নেত্রকোনার স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর কার্যালয়ের আয়োজনে এর সম্মেলন কক্ষে আয়োজন করা হয়।

২০১৮-১৯ অর্থবছরে জেলার হাওর অঞ্চল মদন, মোহনগঞ্জ, খালিয়াজুরী ও কলমাকান্দা উপজেলার বিভিন্ন গ্রামের ৫ হাজার ২০০ জন প্রশিক্ষণার্থীর মাঝ থেকে ৪০ জন সফল প্রদর্শনী বাস্তবায়নকারীকে স্বীকৃতিস্বরূপ তাদেরকে সনদসহ নগদ ৬ হাজার টাকা পুরস্কার প্রদান করা হয়।

এ সময় তাদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন নেত্রকোনা স্থানীয সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. মনিরুজ্জামান।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, সিনিয়র সহকারী প্রকৌশলী পরিতোষ দাস, জেলা প্রকল্প সমন্বয়কারী জয়শ্রী দেবী, জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত উপ-পরিচালক মো. আব্দুল মান্নাফ, জেলা প্রাণিসম্পদ অফিসের অতিরিক্ত জেলা প্রানি সম্পদ কর্মকর্তা ড. মো. এনামুল হক।

এছাড়া হিলিপ প্রকল্পে নেত্রকোনায় সদ্য যোগদানকৃত জেলা লাইভলিহুড কো-অর্ডিনেটর আরিফ রব্বানী, বিদায়ী জেলা লাইভলিহুড কো-অর্ডিনেটর আবু জাহের, মনিটরিং এন্ড ইভালুয়েশন অফিসার স্মৃতম খাসনবিশ, জেলা প্রশিক্ষণ সমন্বয়কারী বজলুর রহমান গাজী, রিসোর্স ম্যানেজমেন্ট কো-অর্ডিনেটর তোফাজ্জল হোসেন সহ এলজিইডির বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা কর্মচারীগণ উপস্থিত ছিলেন।

আপনার মন্তব্য লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষণ করুন

প্রকাশক ও সম্পাদক সম্পর্কে-

শফিকুল আলম শাহীন

আমি একজন ওয়েব ডেভেলপার ও সাংবাদিক। আমি দৈনিক ইত্তেফাক পত্রিকায় পূর্বধলা উপজেলা সংবাদদাতা হিসেবে কর্মরত । সেইসাথে পূর্বকণ্ঠ অনলাইন প্রকাশনার সম্পাদক ও প্রকাশক। আমার বর্তমান ঠিকানা স্টেশন রোড, পূর্বধলা, নেত্রকোনা। আমি জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে ইতিবাচক। আমার ধর্ম ইসলাম। আমি করতে, দেখতে এবং অভিজ্ঞতা করতে পছন্দ করি এমন অনেক কিছু আছে। আমি আইটি সেক্টর নিয়ে বিভিন্ন এক্সপেরিমেন্ট করতে পছন্দ করি। যেমন ওয়েব পেজ তৈরি করা, বিভিন্ন অ্যাপ তৈরি করা, রেডিও স্টেশন তৈরি করা, অনলাইন সংবাদপত্র তৈরি করা ইত্যাদি। প্রয়োজনে: ০১৭১৩৫৭৩৫০২
জনপ্রিয়

নেত্রকোনায় প্রদর্শনী বাস্তবায়নে সফলতা অর্জন করায় ৪০ জন নারী-পুরুষকে পুরস্কিত

আপডেট : ০২:৩২:২২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩ অক্টোবর ২০১৯

কে. এম. সাখাওয়াত হোসেন, নেত্রকোনা :

হাওর অঞ্চলের অবকাঠামো ও জীবনমান উন্নয়ন (হিলিপ) এবং অভিযোজন ও জীবনমান সুরক্ষা (ক্যালিপ) প্রকল্পের আওতায় কৃষি, মৎস্য, প্রাণিসম্পদ ও কারিগরি প্রদর্শনী বাস্তবায়নে সফলতা অর্জন করায় নেত্রকোনার ৪০ জন নারী-পুরুষ উপকারভোগীকে পুরস্কার প্রদান করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় ‘এওয়ার্ড ফর বেস্ট প্রেক্টিস্’ নামক অনুষ্ঠান নেত্রকোনার স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর কার্যালয়ের আয়োজনে এর সম্মেলন কক্ষে আয়োজন করা হয়।

২০১৮-১৯ অর্থবছরে জেলার হাওর অঞ্চল মদন, মোহনগঞ্জ, খালিয়াজুরী ও কলমাকান্দা উপজেলার বিভিন্ন গ্রামের ৫ হাজার ২০০ জন প্রশিক্ষণার্থীর মাঝ থেকে ৪০ জন সফল প্রদর্শনী বাস্তবায়নকারীকে স্বীকৃতিস্বরূপ তাদেরকে সনদসহ নগদ ৬ হাজার টাকা পুরস্কার প্রদান করা হয়।

এ সময় তাদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন নেত্রকোনা স্থানীয সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. মনিরুজ্জামান।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, সিনিয়র সহকারী প্রকৌশলী পরিতোষ দাস, জেলা প্রকল্প সমন্বয়কারী জয়শ্রী দেবী, জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত উপ-পরিচালক মো. আব্দুল মান্নাফ, জেলা প্রাণিসম্পদ অফিসের অতিরিক্ত জেলা প্রানি সম্পদ কর্মকর্তা ড. মো. এনামুল হক।

এছাড়া হিলিপ প্রকল্পে নেত্রকোনায় সদ্য যোগদানকৃত জেলা লাইভলিহুড কো-অর্ডিনেটর আরিফ রব্বানী, বিদায়ী জেলা লাইভলিহুড কো-অর্ডিনেটর আবু জাহের, মনিটরিং এন্ড ইভালুয়েশন অফিসার স্মৃতম খাসনবিশ, জেলা প্রশিক্ষণ সমন্বয়কারী বজলুর রহমান গাজী, রিসোর্স ম্যানেজমেন্ট কো-অর্ডিনেটর তোফাজ্জল হোসেন সহ এলজিইডির বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা কর্মচারীগণ উপস্থিত ছিলেন।