নেত্রকোনা ১১:৩৯ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

গোপালদিঘি উচ্চ বিদ্যালয়ে পালন করা হয়নি ২১শে ফেব্রুয়ারির কর্মসুচি

আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো ২১শে ফেব্রæয়ারী আমি কি ভুলিতে পারি।ভুলতে না পারা সেই অমর একুশে ফেব্রæয়ারী শুক্রবার মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস সারাদেশে যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হলেও টাঙ্গাইলের কালিহাতীর গোপাল দিঘি কেপি ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ে কোন প্রকার কর্মসূচি পালন করা হয়নি।

অযতেœ অবহেলায় পড়ে আছে শহীদ মিনারটি। শুক্রবার সকালে ওই বিদ্যাললয়ে গিয়ে দেখা যায়,অফিস কক্ষ তালাবদ্ধ,উপস্থিতি নেই কোন শিক্ষক শির্ক্ষাথীর। শহীদ মিনারটি পড়ে আছে অযতœ অবহেলায়।শহীদ মিনারের বেদিতে করা হয়নি পুস্পস্তবক অর্পণ।দেখানো হয়নি ভাষা শহীদদের প্রতি সম্মান ও শ্রদ্ধা।

দশম শ্রেণীর শিক্ষার্থী আশরাফুলসহ ওই বিদ্যালয়ের একাধিক শিক্ষার্থী জানানায়,স্যাররা ২১শে ফেব্রæয়ারির বিষয়ে কিছু জানায় নাই তাই ফুল দিতে যাইনি।

পাইকড়া ইউপি আ’লীগ সভাপতি ও ওই বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক হায়দার আলী মোল্লা জানান, মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন করার কথা ছিল।আমি সকালে গিয়ে দেখি কোন কর্মসুচির আয়োজন নাই।

গোপাল দিঘি কেপি ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক শাহ আলম এর মুঠো ফোনে জানান,আমাদেও বিদ্যালয়ের পরিচালনা পরিষদের নির্বাচণ ২২ফেব্রæয়ারি।এনির্বাচন নিয়ে মারামারি ও মামলা হয়েছে।তাই অনুষ্ঠান পালন করতে পারি নাই।
উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার রোকেয়া খাতুন জানান,আমি সকালে জানতে পারি গোপাল দিঘি কেপি ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের কর্মসুচি পালন করা হয় নাই।আমি দিবসটি পালন করার নির্দেশ দিয়েছি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মতর্তা শামিম আরা নিপা জানান,আমি আপনার কাছে শুনলাম,শিক্ষা অফিসারের সাথে কথা বলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আপনার মন্তব্য লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষণ করুন

প্রকাশক ও সম্পাদক সম্পর্কে-

শফিকুল আলম শাহীন

আমি একজন ওয়েব ডেভেলপার ও সাংবাদিক। আমি দৈনিক ইত্তেফাক পত্রিকায় পূর্বধলা উপজেলা সংবাদদাতা হিসেবে কর্মরত । সেইসাথে পূর্বকণ্ঠ অনলাইন প্রকাশনার সম্পাদক ও প্রকাশক। আমার বর্তমান ঠিকানা স্টেশন রোড, পূর্বধলা, নেত্রকোনা। আমি জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে ইতিবাচক। আমার ধর্ম ইসলাম। আমি করতে, দেখতে এবং অভিজ্ঞতা করতে পছন্দ করি এমন অনেক কিছু আছে। আমি আইটি সেক্টর নিয়ে বিভিন্ন এক্সপেরিমেন্ট করতে পছন্দ করি। যেমন ওয়েব পেজ তৈরি করা, বিভিন্ন অ্যাপ তৈরি করা, রেডিও স্টেশন তৈরি করা, অনলাইন সংবাদপত্র তৈরি করা ইত্যাদি। প্রয়োজনে: ০১৭১৩৫৭৩৫০২

গোপালদিঘি উচ্চ বিদ্যালয়ে পালন করা হয়নি ২১শে ফেব্রুয়ারির কর্মসুচি

আপডেট : ০৬:৩২:৫০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২০

আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো ২১শে ফেব্রæয়ারী আমি কি ভুলিতে পারি।ভুলতে না পারা সেই অমর একুশে ফেব্রæয়ারী শুক্রবার মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস সারাদেশে যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হলেও টাঙ্গাইলের কালিহাতীর গোপাল দিঘি কেপি ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ে কোন প্রকার কর্মসূচি পালন করা হয়নি।

অযতেœ অবহেলায় পড়ে আছে শহীদ মিনারটি। শুক্রবার সকালে ওই বিদ্যাললয়ে গিয়ে দেখা যায়,অফিস কক্ষ তালাবদ্ধ,উপস্থিতি নেই কোন শিক্ষক শির্ক্ষাথীর। শহীদ মিনারটি পড়ে আছে অযতœ অবহেলায়।শহীদ মিনারের বেদিতে করা হয়নি পুস্পস্তবক অর্পণ।দেখানো হয়নি ভাষা শহীদদের প্রতি সম্মান ও শ্রদ্ধা।

দশম শ্রেণীর শিক্ষার্থী আশরাফুলসহ ওই বিদ্যালয়ের একাধিক শিক্ষার্থী জানানায়,স্যাররা ২১শে ফেব্রæয়ারির বিষয়ে কিছু জানায় নাই তাই ফুল দিতে যাইনি।

পাইকড়া ইউপি আ’লীগ সভাপতি ও ওই বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক হায়দার আলী মোল্লা জানান, মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন করার কথা ছিল।আমি সকালে গিয়ে দেখি কোন কর্মসুচির আয়োজন নাই।

গোপাল দিঘি কেপি ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক শাহ আলম এর মুঠো ফোনে জানান,আমাদেও বিদ্যালয়ের পরিচালনা পরিষদের নির্বাচণ ২২ফেব্রæয়ারি।এনির্বাচন নিয়ে মারামারি ও মামলা হয়েছে।তাই অনুষ্ঠান পালন করতে পারি নাই।
উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার রোকেয়া খাতুন জানান,আমি সকালে জানতে পারি গোপাল দিঘি কেপি ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের কর্মসুচি পালন করা হয় নাই।আমি দিবসটি পালন করার নির্দেশ দিয়েছি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মতর্তা শামিম আরা নিপা জানান,আমি আপনার কাছে শুনলাম,শিক্ষা অফিসারের সাথে কথা বলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।