মঙ্গলবার ১৬ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৩রা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গাজীপুরে মিনিস্টার-মাইওয়ান ফ্রিজ কারখানার আগুন নিয়ন্ত্রনে, ঘটনা তদন্তে ৬ সদস্যের কমিটি গঠন

 |  আপডেট ৩:৫১ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | প্রিন্ট  | 228

গাজীপুরে মিনিস্টার-মাইওয়ান ফ্রিজ কারখানার আগুন নিয়ন্ত্রনে, ঘটনা তদন্তে ৬ সদস্যের কমিটি গঠন

সামসুল হক জুৃয়েল, গাজীপুর প্রতিনিধি: গাজীপুরের ধীরাশ্রম এলাকায় মাইওয়ান ইলেকট্রনিকসের সহযোগী প্রতিষ্ঠান মিনিস্টার হাই-টেক পার্ক লিমিটেডের কারখানায় অগ্নিকাণ্ড ঘটেছে। ঘটনা তদন্তে ৬ সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে।

শুক্রবার সকাল সোয়া ৭টার দিকে ছয়তলা ভবনের উপরের তলার গুদামে অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয়, পরে তা পাশের একটি ৬ তলা ও একটি ৫ তলা ভবনে ছড়িয়ে পড়ে।


খবর পেয়ে জয়দেবপুর ও টঙ্গী ফায়ার সার্ভিসের ছয়টি ইউনিটের কর্মীরা দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ শুরু করে, পরে উত্তরাসহ বিভিন্ন স্টেশন থেকে আরো ১০টি ইউনিটসহ মোট ১৬ টি ইউনিট কাজ করে

প্রায় ৬ ঘন্টার চেষ্টায় বেলা ১টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রনে আসে

আগুন লাগার কারণ সম্পর্কে তাৎক্ষণিকভাবে কোনো তথ্য দিতে পারেননি ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা। কেউ হতাহত হওয়ারও খবর পাওয়া যায়নি।

ওই কারখানায় অগ্নিনির্বাপনের পর্যাপ্ত ব্যবস্থা ছিল না জানিয়ে ফায়ার সার্ভিস সদর দপ্তরের সহকারী পরিচালক সালেহ উদ্দিন সাংবাদিকদের বলেন, পাশের মার্কওয়্যার লিমিটেডের জলাশয় ও পানি ব্যবহার করে আমরা আগুন নেভানোর চেষ্টা করে যাচ্ছি।

কলকারখানা অধিদপ্তরের সহকারী মহাপরিদর্শক মোতালিব মিয়া বলেন, এই কারখানায় নিয়মিত অগ্নিনির্বাপন মহড়ার আয়োজন করা হতো না। ছয় তলার ওপরে গুদাম রাখার নিয়ম নেই।

কারখানায় ফায়ার অ্যালার্ম ও অগ্নিনির্বাপনের পর্যাপ্ত সরঞ্জাম ছিল না বলে ২০-২৫ দিন আগেও আমরা নোটিস দিয়েছিলাম, কিন্তু কারখানা কর্তৃপক্ষ কোনো জবাব দেয়নি। এ কারণে কলকারখানা অধিদপ্তর তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেবে।

মিনিস্টার হাই-টেক পার্ক লিমিটেডের ডিজিএম (অ্যাকউন্টস অ্যান্ড ফিন্যান্স) রফিকুল ইসলাম জানান, ওই কারখানায় টেলিভিশন, রেফ্রিজারেটর সংযোজনের পাশাপাশি রাইস কুকার, ইস্ত্রিসহ বিভিন্ন ইলেকট্রনিক পণ্য তৈরি করা হয়।

এদিকে অগ্নিকাণ্ডের খবর পেয়ে গাজীপুরের মেয়র জাহাঙ্গীর আলম, সংরক্ষিত আসনের এমপি শামসুন্নাহার ভূঁইয়া, জেলা প্রশাসক এস এম তরিকুল ইসলাম এবং পুলিশ কমিশনার আনোয়ার হোসেন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

জেলা প্রশাসক জানান, মিনিস্টার কারখানায় আগুনের কারণ খতিয়ে দেখতে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোহম্মদ শহিদুল্লাহকে প্রধান করে ছয় সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্ত কমিটিকে ৭ কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement
এক ক্লিকে বিভাগের খবর
মোঃ শফিকুল আলম শাহীন প্রকাশক ও সম্পাদক
বার্তা ও সম্পাদকীয় কার্যালয়

স্টেশন রোড, পূর্বধলা, নেত্রকোনা।

হেল্প লাইনঃ ০১৭১৩৫৭৩৫০২

E-mail: info@purbakantho.com