নেত্রকোনা ০২:৫৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ৮ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গাজীপুরে মলম পার্টির চার সদস্য আটক

  • আপডেট : ০২:৫১:৫৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯
  • ২৬২

সামসুল হক জুৃয়েল, গাজীপুর প্রতিনিধি: গাজীপুরের কোনাবাড়ী থানার নছের মার্কেট এলাকা থেকে জাহাঙ্গীর, রনি, ফজিবর ও মানিক নামে মলম পার্টির চার সদস্যকে আটক করা হয়েছে বলে আজা বুধবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানায় র‌্যাব-১।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গতকাল মঙ্গলবার রাত ১০টায় র‌্যাব-১ এর কোম্পানী কমান্ডার আব্দুল্লাহ আল-মামুনের নেতৃত্বে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাদেরকে আটক করা হয়।

আটককৃত মো: জাহাঙ্গীর আলম (৩৩) মুন্সিগঞ্জ জেলা টঙ্গী বাড়ী থানা হাসাইল গ্রামের মো: তাজেল ইসলামের পুত্র এবং জিএমপি কাশিমপুর হাতিমারা এলাকার ফয়সালের বাড়ীর ভাড়াটিয়া, মো: রনি মিয়া (৩৭) শেরপুর সদর হেলুয়া নয়াপাড়া এলাকার মৃত জিয়াউল হকের পুত্র এবং জিএমটি কোনাবাড়ী নছের মার্কেট এলাকার কালামের বাড়ীর ভাড়াটিয়া, মোঃ ফজিবর মিয়া (১৯) কুড়িগ্রাম রৌমারী থানা মির্জাপাড়ার মোঃ জাবেদ মিয়ার পুত্র, মোঃ মানিক মিয়া (২০) ময়মনসিংহ ফুলপুর মোঃ আক্কাস আলীর পুত্র এবং জিএমপি বাসন আশরাফের বাড়ীর ভাড়াটিয়া।

আটকের সময় তাদের কাছ থেকে ১টি চাপাতি, ২টি চাকু, অজ্ঞান কাজে ব্যবহৃত ১০টি মলম, ৪টি মোবাইল ফোন, নগদ ৬শত ৭০টাকা উদ্ধার করা হয়।

র‌্যাবের জিজ্ঞাসাবাদে আটককৃতরা জানায়, তারা গাজীপুর জেলার মূল মলম পার্টির সক্রিয় সদস্য। মলম সম্পর্কে জিজ্ঞাসাবাদে গাজীপুর জেলার প্রধান অজ্ঞান কাজে ব্যবহৃত শীর্ষ ডিলার তাদের কাছ থেকে গাজীপুর জেলার অন্যান্য ছিনতাই পার্টির সদস্যরা অজ্ঞান কাজে ব্যবহৃত মলম ক্রয় করে বলেও জানান তারা।

তারা আরো জানায়, একে অপরের যোগসাজশে দীর্ঘদিন যাবৎ উক্ত মলম দ্বারা গাজীপুরসহ আশপাশের এলাকায় সাধারণ পথচারী, বাসযাত্রী এবং মটর সাইকেল আরোহীদের মারধর এবং অস্ত্রের ভয়ভীতি দেখিয়ে প্রাইভেটকার, মোটর সাইকেল, গাড়ী, টাকা পয়সা, মোবাইল, স্বর্ণালংকার ইত্যাদি ছিনতাই করে আসছে।

উদ্বারকৃত আলামত ও গ্রেফতারকৃত আসামীদেরকে থানায় হস্তান্তরের ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

আপনার মন্তব্য লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষণ করুন

প্রকাশক ও সম্পাদক সম্পর্কে-

আমি মো. শফিকুল আলম শাহীন। আমি একজন ওয়েব ডেভেলপার ও সাংবাদিক । আমি পূর্বকণ্ঠ অনলাইন প্রকাশনার সম্পাদক ও প্রকাশক। আমি জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে ইতিবাচক। আমি করতে, দেখতে এবং অভিজ্ঞতা করতে পছন্দ করি এমন অনেক কিছু আছে। আমি আইটি সেক্টর নিয়ে বিভিন্ন এক্সপেরিমেন্ট করতে পছন্দ করি। যেমন ওয়েব পেজ তৈরি করা, বিভিন্ন অ্যাপ তৈরি করা, অনলাইন রেডিও স্টেশন তৈরি করা, অনলাইন সংবাদপত্র তৈরি করা ইত্যাদি। আমাদের প্রকাশনা “পূর্বকন্ঠ” স্বাধীনতার চেতনায় একটি নিরপেক্ষ জাতীয় অনলাইন । পাঠক আমাদের সবচেয়ে বড় অনুপ্রেরনা। পূর্বকণ্ঠ কথা বলে বাঙালির আত্মপ্রত্যয়ী আহ্বান ও ত্যাগে অর্জিত স্বাধীনতার। কথা বলে স্বাধীনতার চেতনায় উদ্বুদ্ধ হতে। ছড়িয়ে দিতে এ চেতনা দেশের প্রত্যেক কোণে কোণে। আমরা রাষ্ট্রের আইন কানুন, রীতিনীতির প্রতি শ্রদ্ধাশীল। দেশপ্রেম ও রাষ্ট্রীয় আইন বিরোধী এবং বাঙ্গালীর আবহমান কালের সামাজিক সহনশীলতার বিপক্ষে পূর্বকন্ঠ কখনো সংবাদ প্রকাশ করে না। আমরা সকল ধর্মমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল, কোন ধর্মমত বা তাদের অনুসারীদের অনুভূতিতে আঘাত দিয়ে আমরা কিছু প্রকাশ করি না। আমাদের সকল প্রচেষ্টা পাঠকের সংবাদ চাহিদাকে কেন্দ্র করে। তাই পাঠকের যে কোনো মতামত আমরা সাদরে গ্রহন করব।

ইরাকে সামরিক ঘাঁটিতে বিস্ফোরণ, হতাহত ৯

গাজীপুরে মলম পার্টির চার সদস্য আটক

আপডেট : ০২:৫১:৫৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯

সামসুল হক জুৃয়েল, গাজীপুর প্রতিনিধি: গাজীপুরের কোনাবাড়ী থানার নছের মার্কেট এলাকা থেকে জাহাঙ্গীর, রনি, ফজিবর ও মানিক নামে মলম পার্টির চার সদস্যকে আটক করা হয়েছে বলে আজা বুধবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানায় র‌্যাব-১।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গতকাল মঙ্গলবার রাত ১০টায় র‌্যাব-১ এর কোম্পানী কমান্ডার আব্দুল্লাহ আল-মামুনের নেতৃত্বে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাদেরকে আটক করা হয়।

আটককৃত মো: জাহাঙ্গীর আলম (৩৩) মুন্সিগঞ্জ জেলা টঙ্গী বাড়ী থানা হাসাইল গ্রামের মো: তাজেল ইসলামের পুত্র এবং জিএমপি কাশিমপুর হাতিমারা এলাকার ফয়সালের বাড়ীর ভাড়াটিয়া, মো: রনি মিয়া (৩৭) শেরপুর সদর হেলুয়া নয়াপাড়া এলাকার মৃত জিয়াউল হকের পুত্র এবং জিএমটি কোনাবাড়ী নছের মার্কেট এলাকার কালামের বাড়ীর ভাড়াটিয়া, মোঃ ফজিবর মিয়া (১৯) কুড়িগ্রাম রৌমারী থানা মির্জাপাড়ার মোঃ জাবেদ মিয়ার পুত্র, মোঃ মানিক মিয়া (২০) ময়মনসিংহ ফুলপুর মোঃ আক্কাস আলীর পুত্র এবং জিএমপি বাসন আশরাফের বাড়ীর ভাড়াটিয়া।

আটকের সময় তাদের কাছ থেকে ১টি চাপাতি, ২টি চাকু, অজ্ঞান কাজে ব্যবহৃত ১০টি মলম, ৪টি মোবাইল ফোন, নগদ ৬শত ৭০টাকা উদ্ধার করা হয়।

র‌্যাবের জিজ্ঞাসাবাদে আটককৃতরা জানায়, তারা গাজীপুর জেলার মূল মলম পার্টির সক্রিয় সদস্য। মলম সম্পর্কে জিজ্ঞাসাবাদে গাজীপুর জেলার প্রধান অজ্ঞান কাজে ব্যবহৃত শীর্ষ ডিলার তাদের কাছ থেকে গাজীপুর জেলার অন্যান্য ছিনতাই পার্টির সদস্যরা অজ্ঞান কাজে ব্যবহৃত মলম ক্রয় করে বলেও জানান তারা।

তারা আরো জানায়, একে অপরের যোগসাজশে দীর্ঘদিন যাবৎ উক্ত মলম দ্বারা গাজীপুরসহ আশপাশের এলাকায় সাধারণ পথচারী, বাসযাত্রী এবং মটর সাইকেল আরোহীদের মারধর এবং অস্ত্রের ভয়ভীতি দেখিয়ে প্রাইভেটকার, মোটর সাইকেল, গাড়ী, টাকা পয়সা, মোবাইল, স্বর্ণালংকার ইত্যাদি ছিনতাই করে আসছে।

উদ্বারকৃত আলামত ও গ্রেফতারকৃত আসামীদেরকে থানায় হস্তান্তরের ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।