মঙ্গলবার ১৬ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৩রা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কেন্দুয়ায় র‌্যাবের হাতে ভুয়া চক্ষু ডাক্তার আটকের পর ভ্রাম্যমান আদালতে সাজা

 |  আপডেট ১১:১২ অপরাহ্ণ | সোমবার, ১৯ আগস্ট ২০১৯ | প্রিন্ট  | 256

কেন্দুয়ায় র‌্যাবের হাতে ভুয়া চক্ষু ডাক্তার আটকের পর ভ্রাম্যমান আদালতে সাজা

কে. এম. সাখাওয়াত হোসেন, নেত্রকোনা :

র‌্যাব-১৪ সিপিসি-২ এর কোম্পানি অধিনায়ক লে. কমান্ডার শোভন খানের নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে সোমবার রাতে নেত্রকোনার কেন্দুয়া উপজেলায় রামপুর বাজারে চিকিৎসা দেয়ার সময় মোজাম্মেল হক (৪৩) নামে এক ভুয়া চোখের ডাক্তারকে আটক করা হয়েছে।


এ সময় র‌্যাবের সাথে থাকা কেন্দুয়া উপজেলার নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারি কমিশনার (ভূমি) শিরিন সুলতানা ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে দন্ডাদেশ প্রদান করেন। দণ্ডপ্রাপ্ত ভুয়া চোখের ডাক্তার ওই উপজেলার নওপাড়া ইউনিয়নের বহলী গ্রামের সাহাব উদ্দিনের ছেলে।

র‌্যাব-১৪ অধিনায়ক লে. কমান্ডার শোভন খান প্রেস ব্রিফিং এ জানান, মো. মোজাম্মেল হক ভুয়া চোখের ডাক্তার সেজে রোগী দেখার সময় অভিযান চালিয়ে তার ডাক্তারী কাগজ পত্র দেখাতে চাইলে তা দেখাতে ব্যর্থ হন। পরে জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় সে একজন চিকিৎসক না হয়েও নিয়মিত ভাবে রোগী দেখাসহ রোগীদেরকে এন্টিবায়টিকসহ বিভিন্ন ধরণের ওষুধপত্রে ব্যবস্থাপত্র প্রদান করে থাকেন।

এ ব্যাপারে ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক শিরিন সুলতানা বলেন, মোজাম্মেল হক ভুয়া চক্ষু চিকিৎসক কেন্দুয়া উপজেলার রামপুর বাজারের সাইদুল ইসলামের মায়ের দোয়া নামের ফার্মেসীতে বসে রোগীদের ব্যবস্থাপত্র দিয়ে আসছিলেন। অভিযোগের ভিত্তিতে র‌্যাব-১৪ প্রথমে ভুয়া চিকিৎসককে আটক করে। পরে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে মেডিকেল ও ডেন্টাল আইন অনুযায়ী তাকে এক লাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে এক মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়েছে বলে তিনি জানান।

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement
এক ক্লিকে বিভাগের খবর
মোঃ শফিকুল আলম শাহীন প্রকাশক ও সম্পাদক
বার্তা ও সম্পাদকীয় কার্যালয়

স্টেশন রোড, পূর্বধলা, নেত্রকোনা।

হেল্প লাইনঃ ০১৭১৩৫৭৩৫০২

E-mail: info@purbakantho.com