নেত্রকোনা ০৪:৫২ অপরাহ্ন, সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ২১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

কালিয়াকৈরে আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত

বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী ও জাতীয় সমাবেশ গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলা সফিপুরস্থ বাংলাদেশ আনসার ও ভিডিপি একাডেমীতে রোববার সকালে আনুষ্ঠানিক ভাবে উদ্বোধন করা হয়েছে।

৪০তম আনসার ও ভিডিপি জাতীয় সমাবেশ উদ্বোধন উপলক্ষে সকালে একটি বর্ণঢ্য র‍্যালী বের হয়ে বিভিন্ন সড়ক পদক্ষিন শেষে ইয়াদ আলী প্যারেড গ্রাউন্ড চত্বরে সমাবেশ মিলিত হয়।

বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর মহা পপরিচালক মেজর জেনারেল কাজী শরীফ
কায়কোবাদ এমডিসি ,পিএসসিজি প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বেলুন উড়িয়ে ও কেক কেটে ভিডিপি প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী ও ৪০তম জাতীয় সমাবেশের শুভ উদ্বোধন ঘোষনা করেন।

পরে তিনি উদ্বোধনী বক্তব্যে বলেন, দেশের আর্থ সামাজিক উন্নয়নে ভিডিপির সদস্যদের আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর ভুমিকা রয়েছে। প্রত্যন্তঅঞ্চলে শান্তি শৃংখলা ও আর্থ সামাজিক উন্নয়নে ভিডিপির সদস্য ও সদস্যদের সততা, নিষ্ঠা ও আন্তরিকতার সাথে দায়িত্ব পালনের জন্য তিনি নির্দেশ প্রদান করেন।

বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা।বাহিনীর ঐতিহ্য, সম্মান ও মর্জাদা অক্ষুন্ন রেখে নিজেদের উপর অর্পিত দায়িত্ব ও কর্তব্য সঠিকভাবে পালন এবং জাতিয় সমাবেশের সার্বিক কার্যক্রম সফলতার সাথে সম্পন্ন করার জন্য তিনি উপস্থিত সকলের প্রতি আহবান জানান।

পরে আনসার ও ভিডিপির মহাপরিচালক মেজর জেনারেল কাজী শরীফ মোহাম্মদ কায়কোবাদ সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে বলেন, বঙ্গবন্ধুর জন্ম, কর্ম, রাজনৈতিক নেতৃত্ব এবং জীবনাদর্শ সম্পর্কে গ্রামের মানুষকে অবহিত করতে আনসার ভিডিপির পক্ষ থেকে প্রামাণ্যচিত্র তৈরি করা হচ্ছে ।

এছাড়াও বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর।সকল জেলা পর্যায়ের ভিডিপির প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী ও বাহিনীর ৪০তম জাতীয় সমাবেশ ২০২০ উদ্বোধন উপলক্ষে বাহিনীর পক্ষ থেকে বিভিন্ন কর্মসুচী পালন করেন।

আপনার মন্তব্য লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষণ করুন

প্রকাশক ও সম্পাদক সম্পর্কে-

শফিকুল আলম শাহীন

আমি একজন ওয়েব ডেভেলপার ও সাংবাদিক। আমি দৈনিক ইত্তেফাক পত্রিকায় পূর্বধলা উপজেলা সংবাদদাতা হিসেবে কর্মরত । সেইসাথে পূর্বকণ্ঠ অনলাইন প্রকাশনার সম্পাদক ও প্রকাশক। আমার বর্তমান ঠিকানা স্টেশন রোড, পূর্বধলা, নেত্রকোনা। আমি জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে ইতিবাচক। আমার ধর্ম ইসলাম। আমি করতে, দেখতে এবং অভিজ্ঞতা করতে পছন্দ করি এমন অনেক কিছু আছে। আমি আইটি সেক্টর নিয়ে বিভিন্ন এক্সপেরিমেন্ট করতে পছন্দ করি। যেমন ওয়েব পেজ তৈরি করা, বিভিন্ন অ্যাপ তৈরি করা, রেডিও স্টেশন তৈরি করা, অনলাইন সংবাদপত্র তৈরি করা ইত্যাদি। প্রয়োজনে: ০১৭১৩৫৭৩৫০২
জনপ্রিয়

কালিয়াকৈরে আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত

আপডেট : ০৬:৫৬:৫৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ৫ জানুয়ারী ২০২০

বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী ও জাতীয় সমাবেশ গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলা সফিপুরস্থ বাংলাদেশ আনসার ও ভিডিপি একাডেমীতে রোববার সকালে আনুষ্ঠানিক ভাবে উদ্বোধন করা হয়েছে।

৪০তম আনসার ও ভিডিপি জাতীয় সমাবেশ উদ্বোধন উপলক্ষে সকালে একটি বর্ণঢ্য র‍্যালী বের হয়ে বিভিন্ন সড়ক পদক্ষিন শেষে ইয়াদ আলী প্যারেড গ্রাউন্ড চত্বরে সমাবেশ মিলিত হয়।

বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর মহা পপরিচালক মেজর জেনারেল কাজী শরীফ
কায়কোবাদ এমডিসি ,পিএসসিজি প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বেলুন উড়িয়ে ও কেক কেটে ভিডিপি প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী ও ৪০তম জাতীয় সমাবেশের শুভ উদ্বোধন ঘোষনা করেন।

পরে তিনি উদ্বোধনী বক্তব্যে বলেন, দেশের আর্থ সামাজিক উন্নয়নে ভিডিপির সদস্যদের আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর ভুমিকা রয়েছে। প্রত্যন্তঅঞ্চলে শান্তি শৃংখলা ও আর্থ সামাজিক উন্নয়নে ভিডিপির সদস্য ও সদস্যদের সততা, নিষ্ঠা ও আন্তরিকতার সাথে দায়িত্ব পালনের জন্য তিনি নির্দেশ প্রদান করেন।

বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা।বাহিনীর ঐতিহ্য, সম্মান ও মর্জাদা অক্ষুন্ন রেখে নিজেদের উপর অর্পিত দায়িত্ব ও কর্তব্য সঠিকভাবে পালন এবং জাতিয় সমাবেশের সার্বিক কার্যক্রম সফলতার সাথে সম্পন্ন করার জন্য তিনি উপস্থিত সকলের প্রতি আহবান জানান।

পরে আনসার ও ভিডিপির মহাপরিচালক মেজর জেনারেল কাজী শরীফ মোহাম্মদ কায়কোবাদ সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে বলেন, বঙ্গবন্ধুর জন্ম, কর্ম, রাজনৈতিক নেতৃত্ব এবং জীবনাদর্শ সম্পর্কে গ্রামের মানুষকে অবহিত করতে আনসার ভিডিপির পক্ষ থেকে প্রামাণ্যচিত্র তৈরি করা হচ্ছে ।

এছাড়াও বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর।সকল জেলা পর্যায়ের ভিডিপির প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী ও বাহিনীর ৪০তম জাতীয় সমাবেশ ২০২০ উদ্বোধন উপলক্ষে বাহিনীর পক্ষ থেকে বিভিন্ন কর্মসুচী পালন করেন।