শনিবার ১৩ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৩০শে চৈত্র, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

এ কে সরকার শাওন এর দুটি কবিতা

 |  আপডেট ২:৩৭ অপরাহ্ণ | বুধবার, ১৪ আগস্ট ২০১৯ | প্রিন্ট  | 1128

এ কে সরকার শাওন এর দুটি কবিতা

শ্রাবণের ছায়ামূর্তি

বর্ষা বিদায়ের শেষ ক্ষণে
শ্রাবণ রাতের শেষ প্রহরে
বৃষ্টি ঝরছে অঝোর ধারায়!
টিনের চালায় রিমঝিম
সেতারের করুণ মূর্ছনায়;
সুর-ছন্দে তাল ও লয়ে
কত স্মৃতি মনে পড়ে যায়!
মুধুর হতো যদি সে একবার
আসতো এই ছোট্ট মথুরায়!


আকাশে বিজলীর চমকে
চোখ যায় শাখায় শাখায়;
আম-সুপারি-কাঁঠালের
মগডালগুলো মৌণ মলিন,
বিষন্নতায় তাঁর প্রতীক্ষায়!

নিরবিচ্ছিন্ন কান্না-বৃষ্টির
শীতল জলে প্রশমিত হয় না
বুকের বাম তপ্ত উনুন।
যে খেলিছে রথ দেখা ছলাকলা
সে রয়েছে আমার মায়াকাননে
আগেরই মতন চির তরুন!

বিজলির চমকিত আলোতে
দু’চোখে যত দূরে যায়;
ছায়ামূর্তি দেখে মনে মনে
ভাবি এই বুঝি সে এসে
দরজায় কড়া নাড়ায়!

দ্বার খুলে দেখি শা শা বরষা;
কেউ নাই কেউ আসে নাই!
মৌণ আর্তনাদে হৃদয়ের
তন্ত্রীগুলো ছিড়ে ছিঁড়ে যায়!

বলা না যায়, সওয়া না যায়
চিৎকার করে কাঁদা ও দায়;
শুধু অনুভব করা যায়
হায়, মানুষ কত অসহায়!

আশাহত করে এবারের
বর্ষাটাও চলে যায়;
কেউ তো এলো না আজো,
বিবর্ণ জীবনটা রাঙ্গাতে হায়!

শ্রাবণের রাত্রি শুধু প্রতীক্ষার;
বিমুর্ত প্রতীক বিরহ বেদনার !
জলের তলে আগুন জ্বলে,
সাথী আমার শুধু হাহাকার!

আমি নইতো একেলা

আমার আছে 
সীমাহীন নীলাকাশ
সাগরের বিস্তৃর্ণ জলরাশি
শুভ্র সাদা মেঘের ভেলা। 
আমি নইতো একেলা!!

আমার আছে
অরণ্যবনবিথীকা
দিগন্তজোড়া শ্যামল শস্যক্ষেত্র
শেষ বিকেলে আলোছায়ার খেলা। 
আমি নইতো একেলা!!

আমার আছে
মনমাতানো বাহারী ফুল
পাখির কিচিরমিচিরকলতান
বেলাভূমি গোধুলীবেলা। 
আমি নইতো একেলা!!

আমার আছে
রাতের অপরূপ তারামন্ডল 
নিশ্চুপ জ্যোছনা বিলাস
জোনাকির ঝিকিমিকি খেলা। 
আমি নইতো একেলা!!

আমার আছে
একরাশ বেদনা বিধূর স্মৃতি
বিরহ বেদনার কাব্য
অপাঙ্গে জলাঙ্গীর মেলা। 
আমি নইতো একেলা।

লেখকঃ এ কে সরকার শাওন, কবি/ গদ্যাকার।

 

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement
এক ক্লিকে বিভাগের খবর
মোঃ শফিকুল আলম শাহীন প্রকাশক ও সম্পাদক
বার্তা ও সম্পাদকীয় কার্যালয়

স্টেশন রোড, পূর্বধলা, নেত্রকোনা।

হেল্প লাইনঃ ০১৭১৩৫৭৩৫০২

E-mail: info@purbakantho.com