বুধবার ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৭ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম >>
শিরোনাম >>

উপকূলে বর্ষাকালীন শিম চাষে সাফল্য

মুহাম্মদ নূরুজ্জামান:  |  আপডেট ৯:৩৩ পূর্বাহ্ণ | শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ | প্রিন্ট  | 144

উপকূলে বর্ষাকালীন শিম চাষে সাফল্য

খুলনা উপকূলীয় অঞ্চলে অনাবাদি ও পতিত জমিতে কৃষক বর্ষাকালীন আগাম জাতের শিম চাষে সাফল্য পেয়েছেন।  ফলে ঘুরতে শুরু করেছে কৃষকের অর্থনৈতিক উন্নয়নের চাকা।

এ বছর ১০ জন কৃষক ৩৩৩ শতক জমিতে শিমের চাষ করেছেন, তার মধ্যে খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলার শরাপপুর  ইউনিয়নে ৪টি, খর্ণিয়া ইউনিয়নে ৫টি এবং বাগেরহাটের মোল্লাহাট উপজেলায় ১টিসহ মোট ১০টি গবেষণা প্লট স্থাপন করা হয়।


প্রতি প্লটে  ১ জন করে ১০ জন কৃষকই আগাম জাতের শিমের চাষ করে সফলতা পেয়েছেন বলে জানিয়েছেন মৃত্তিকা সম্পদ উন্নয়ন ইনস্টিটিউট (এসআরডিআই) এর গোপালগঞ্জ-খুলনা-বাগেরহাট-সাতক্ষীরা-পিরোজপুর কৃষি উন্নয়ন প্রকল্পের পরিচালক শচীন্দ্র নাথ বিশ্বাস।

তিনি বলেন, এ প্রকল্প লবণাক্ত এলাকায় পুকুর ও ঘেরের পাশে পতিত জমিতে অসময়ের সবজি চাষে কৃষককে উদ্বুদ্ধ করে আসছে। এ প্রকল্পের মাধ্যমে কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে প্রশিক্ষণ, কীটনাশক, সার, বীজ, মাচা তৈরির প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম, নগদ অর্থ এবং করোনাকালের সুরক্ষায় মাস্ক বিতরণ করা হয়েছে।

শচীন্দ্র নাথ বিশ্বাস বলেন, শিম একটি প্রোটিন সমৃদ্ধ সবজি।  এর বিচিও পুষ্টিকর খাদ্য হিসেবে খাওয়া হয়।  এটি জমি ছাড়াও রাস্তার ধারে, আইলে, ঘরের চালে, এমনকি গাছেও ফলানো যায়।  বর্ষাকালে সেচের তেমন প্রয়োজনও হয় না।  ফলে কৃষকরা সহজেই লাভবান হন।

এসআরডিআই’র তথ্যমতে, উপকূলীয় অঞ্চলে মোট ৩১ লাখ ৪০ হাজার হেক্টর আবাদযোগ্য জমি রয়েছে।  এর মধ্যে লবণাক্ত জমির পরিমাণ ১০ লাখ ৫৬ হাজার হেক্টর, যা মোট আবাদযোগ্য জমির ৩১ দশমিক ৮ শতাংশ।

ডুমুরিয়ার খর্ণিয়া গ্রামের চাষি রেজাউল মোড়ল বলেন, এসআরডিআই এর অঙ্গ প্রকল্পের সহযোগিতা নিয়ে তিনি রাস্তার পাশের পতিত জমিতে শিম চাষ করেছেন।  ফলনও ভালো হয়েছে।  গত বছরও তিনি এভাবে শিম চাষ করে লাভবান হয়েছিলেন।  তাই এ বছরও চাষে উদ্ধুদ্ধ হন।

ডুমুরিয়ার শরাপপুর গ্রামের চাষি  সিরাজ মোল্লা বলেন, শিম চাষের ক্ষেত্রে তিনি ঘেরের পাড়ের মাটি ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে গত বছর বেশি ফলন পেতে সক্ষম হন।  সব ঠিক থাকলে এবারও লাভবান হবেন বলে আশা করছেন।

ডুমুরিয়ার খর্ণিয়ার আরেক চাষি আব্দুস সালাম খান বলেন, মাটি ও পানি পরীক্ষা করে তিনি শিমের চাষ করেছেন।  এসআরডিআই এর অঙ্গ প্রকল্পের মাধ্যমে সঠিক মাত্রার সার প্রয়োগের মাধ্যমে শিমের ফলন অন্যান্য বছরের তুলনার অনেক ভালো হয়েছে।

প্রসঙ্গত, প্রোটিন সমৃদ্ধ ও আঁশ জাতীয় শিম আষাঢ় থেকে ভাদ্র মাসের মধ্যে বীজ বপন করতে হয়।  জীবনকাল ১৯০-২১০ দিন। হেক্টর প্রতিফলন ১০-১২ টন।  আশ্বিন-কার্তিক মাসে ফুল ধরে।  ফুল ফোটার ২০-২৫ দিন পর ফসল সংগ্রহ করা যায়।  ৪ মাসেরও বেশি সময় ধরে ফল দেয়।  ফলন প্রতি শতকে ৩৫-৭৫ কেজি, হেক্টর প্রতি ১০-১৫ টন।

Source link

শেয়ার করুন..

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement
এক ক্লিকে বিভাগের খবর

এ বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০  
ঘোষনা : আমাদের পূর্বকন্ঠ ওয়েবসাইটে প্রবেশ করার জন্য আপনাকে স্বাগতম। আপনার আশপাশে ঘটে যাওয়া খবরা খবর জানাতে আমাদের ফোন করুন-০১৭১৩৫৭৩৫০২ এই নাম্বারে ☎ গুরুত্বপূর্ণ নাম্বার সমূহ : ☎ জরুরী সেবা : ৯৯৯ ☎ নেত্রকোনা ফায়ার স্টেশন: ০১৭৮৯৭৪৪২১২☎ জেলা প্রশাসক ,নেত্রকোনা:০১৩১৮-২৫১৪০১ ☎ পুলিশ সুপার,নেত্রকোনা: ০১৩২০১০৪১০০☎ অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, সদর সার্কেল : ০১৩২০১০৪১৪৫ ☎ ইউএনও,পূর্বধলা : ০১৭৯৩৭৬২১০৮☎ ওসি পূর্বধলা : ০১৩২০১০৪৩১৫ ☎ শ্যামগঞ্জ পুলিশ তদন্ত কেন্দ্র : ০১৩২০১০৪৩৩৩ ☎ ওসি শ্যামগঞ্জ হাইওয়ে থানা : ০১৩২০১৮২৮২৬ ☎ উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা, পূর্বধলা: ০১৭০০৭১৭২১২/০৯৫৩২৫৬১০৬ ☎ উপজেলা সমাজসেবা অফিসার, পূর্বধলা : ০১৭১৮৩৮৭৫৮৭/০১৭০৮৪১৫০২২ ☎ উপজেলা মৎস্য অফিসার, পূর্বধলা : ০১৫১৫-৬১৪৯২১ ☎ উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা, পূর্বধলা : ০১৯৯০-৭০৩০২০ ☎ উপজেলা প্রাণি সম্পদ অফিসার, পূর্বধলা : ০১৭১৮-৭২৮২৯৪ ☎ উপজেলা প্রকৌশলী (এলজিইডি) পূর্বধলা :০১৭০৮-১৬১৪৫৭ ☎ উপজেলা আনসার ভিডিপি অফিসার, পূর্বধলা : ০১৯১৪-৯১৯৯৩৮ ☎ উপ-সহকারি প্রকৌশলী, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অফিস, পূর্বধলা : ০১৯১৬-৮২৬৬৬৮ ☎ উপজেলা যুব উন্নয়ন অফিসার, পূর্বধলা : ০১৭১১-৭৮৯৭৯৮ ☎ উপজেলা কৃষি অফিসার, পূর্বধলা : ০১৭১৬-৭৯৮৯৪৬ ☎ উপজেলা শিক্ষা অফিসার, পূর্বধলা : ০১৭১৫-৪৭৪২৯৬ ☎ উপজেলা সমবায় অফিসার, পূর্বধলা : ০১৭১৭-০৪৩৬৩৯ ☎ সম্পাদক পূর্বকন্ঠ ☎ ০১৭১৩৫৭৩৫০২ ☎
মোঃ শফিকুল আলম শাহীন সম্পাদক ও প্রকাশক
পূর্বকণ্ঠ ২০১৬ সালে তথ্য অধিদপ্তরে নিবন্ধনের জন্য আবেদিত।
বার্তা ও সম্পাদকীয় কার্যালয়

স্টেশন রোড, পূর্বধলা, নেত্রকোনা।

হেল্প লাইনঃ +৮৮০৯৬৯৬৭৭৩৫০২

E-mail: info@purbakantho.com